কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সদ্য বহিষ্কৃত স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা নিজাম উদ্দিন কায়সার নির্বাচন সুষ্ঠু করতে রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর লিখিত ৭ প্রস্তাবনা দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৪ মে) বেলা ১২টায় কুসিক নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরীর নিকট এ প্রস্তাবনার লিখিত কপি দেন তিনি। পরে দুপুর ৩টায় নিজের বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করে সাংবাদিকদের এ বিষয়টি জানান।

লিখিত ৭ দফা প্রস্তাবনায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নিজাম উদ্দিন কায়সার বলেন, ইভিএম বাতিল করে ব্যালট পেপারে স্বচ্ছ ব্যালট বক্সে ভোট গ্রহণ করতে হবে। সিটি কর্পোরেশন এলাকায় কর্মরত প্রশাসন ও সহকারী পুলিশ পরিদর্শক থেকে সহকারী পুলিশ সুপার পদধারীদের বদলি করতে হবে। নির্বাচনে স্থাপিত সিসি ক্যামেরা প্রার্থীদের পর্যবেক্ষণ করার সুযোগ দিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনসহ সকল নির্বাচনে দিনের ভোট রাতে, কেন্দ্র দখল, ভোটারশূন্য কেন্দ্রসহ বিভিন্ন বিষয়ে বিশ্লেষণ করে দেখা যায় জনগণের মধ্যে সেই ভয় আতঙ্ক ও সন্দেহ বিরাজ করছে। ভোটারদের ভয় ও শঙ্কামুক্ত পরিবেশের বিষয়ে আশ্বস্ত করতে হবে। নির্বাচনের সময় আদালতের গ্রেফতারি পরোয়ানা ছাড়া নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও হয়রানি না করার দাবি জানাচ্ছি।

নিজাম উদ্দিন কায়সার বলেন, প্রতীক বরাদ্দের পর দুজন নির্বাচন কমিশনারের নেতৃত্বে কয়েকটি টিম নির্বাচন এলাকায় অবস্থান করতে হবে এবং প্রার্থীদের অভিযোগ তড়িৎ ও সহজীকরণে হোয়াটসঅ্যাপ, টেলিগ্রাম, ম্যাসেঞ্জারসহ অনলাইন যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করার দাবি জানাচ্ছি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: