কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে প্রচারণায় তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচন সামনে রেখে প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা। ব্যানার ও পোস্টারে ছেয়ে গেছে নগরীর অলিগলি। সকালে গণসংযোগ বিকেলে উঠান বৈঠকসহ বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণায় প্রার্থীরা ব্যস্ত থাকেন মধ্যরাত পর্যন্ত।

বুধবার (১ জুন) নগরীর ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের জয়পুর এলাকায় মনিরুল হক সাক্কুর (টেবিল ঘড়ি) পক্ষে নেচে-গেয়ে ভোট ছেয়েছেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ। বিষয়টি নগরে বেশ আলোচনার সৃষ্টি হয়।

এ সময় তৃতীয় লিঙ্গের নেতা নাগিন হিজড়া বলেন, আমরা অনেক অসহায়। আমরা যখনই সাক্কু ভাইয়ের কাছে যেতাম তিনি সহায়তা করতেন। আমাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন এবার তিনি নির্বাচিত হলে যোগ্যতানুসারে চাকরি দেবেন। আমরাও চাই সাধারণভাবে জীবন যাপন করতে। বিয়ে বাড়ি ও দোকানে চাঁদা তোলা আমাদেরও ভালো লাগে না। সাক্কু ভাইয়ের আশ্বাস পেয়ে আমরা তার পক্ষে ভোট প্রার্থনা করছি।

তিনি বলেন, আমার নেতৃত্বে ১৭০ জন হিজড়া কাজ করেন। করোনাকালীন সাক্কু ভাই আমাদের সহযোগিতা না করলে সবাই না খেয়ে মারা যেতাম। এমপি সাবও সহযোগিতা করেছেন। তবে সাক্কু ভাই বেশি সহযোগিতা করেছেন। আমরা চাই তিনি নির্বাচিত হয়ে আবারও আসুক। সবার পাশে থাকুক।

এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচজন, কাউন্সিলর পদে ১০৬ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৩৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডের ১০৫টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ সিটিতে মোট ভোটার দুই লাখ ২৯ হাজার ৯১৮। তাদের মধ্যে নারী ভোটার এক লাখ ১৭ হাজার ৯২। পুরুষ ভোটার এক লাখ ১২ হাজার ৮২৬।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

ফেসবুকে আমরাঃ