ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার নাঙ্গলকোট থানা ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুর রাজ্জাক সুমনের ওপর হামলার প্রতিবাদে ঢাকা-চট্টগ্রাম ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। নাঙ্গলকোটে রেললাইনের ওপর গাছের গুড়ি ফেলে ও আগুন দিয়ে হাজার হাজার নেতাকর্মী অবস্থান নেন। ফলে রোববার বিকেল চারটা থেকে ট্রেন চলাচল করছে না।রেললাইন অবরোধ করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আবদুর রাজ্জাক সুমনের ওপর হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে স্লোগান দিচ্ছেন।

এরআগে দুপুর পৌনে ২টার দিকে নাঙ্গলকোট সোনালী ব্যাংকের সামনে সুমনের ওপর হামলা চালায় প্রতিপক্ষের কর্মীরা।

সেখানকার মোল্লা হোটেলে দুপুরের খাবার খাওয়ার সময় পেছন থেকে তাকে উপর্যুপুরি কোপানো হয়।

উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আবদুল মালেকের ভাতিজা মিসুর নেতৃত্ব অন্তত ১২ জন সশস্ত্র যুবক এ হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

হামলার পরপরই প্রতিবাদে যুবলীগ সভাপতি আবদুল মালেক ও উপজেলা চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন কালুর বাড়িতে হামলা চালায় ছাত্রলীগের বিক্ষুব্ধ কর্মীরা।

এদিকে, গুরুতর আহত আবদুর রাজ্জাক সুমনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তার মুখ, ঘাড়সহ পুরো শরীরে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে অন্তত ১৫টি কোপ দেয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, হামলাকারীদের মুখ কাপড় দিয়ে বাধা ছিল। কোপানোর এক পর্যায়ে সুমন নিচে পড়ে গেলে তারা পালিয়ে যায়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: