নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার কংশনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রীর বাল্যবিবাহ বন্ধ করে দিয়েছে দেবপুর ফাঁড়ী পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইকবাল হোসেন নামে এক প্রবাসীর সাথে বিয়ের কথা ছিল ওই স্কুল ছাত্রীর।

জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলার বুড়িচং উপজেলার ভারেল্লা উত্তর ইউনিয়নের কংশনগর গ্রামের মফিজুল ইসলামের মেয়ের সাথে দেবিদ্বার উপজেলার ছোটনা গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে প্রবাস ফেরৎ যুবক ইকবাল হোসেন (২২) এর বিবাহের দিন ধার্য্য ছিল। এ বিবাহ উপলক্ষে স্কুল ছাত্রীর বাবা বাড়ীতে আয়োজন সম্পন্ন করে। এ খবরে গতকাল বিকেল সাড়ে ৫ টায় বুড়িচং থানাধীন দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীর এস আই শাহাদাত হোসেন, এ.এস.আই ইকবাল হোসেন, স্থানীয় ইউপি সদস্য মোস্তফা’কে নিয়ে মেয়ের বাড়ীতে হাজির হয়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মেয়ের বাবা পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ মেয়ের জন্ম নিবন্ধন ও স্কুলের কাগজপত্র যাচাই করে নাবালিকা দেখতে পায়। এসময় স্থানীয় ইউপি সদস্য ও এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিদের উপস্থিতে বিয়ের কাজ বন্ধ করে দেয় এবং গোপনে বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা আদায় করে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: