নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ভিরাল্লা সড়কের কালভার্ডের কাছে বুধবার রাত পৌনে ৯টায় পুলিশ পরিচয়ে ব্যবসায়ী কে কুপিয়ে মোটর সাইকেল ও নগদ ১লক্ষ বাষট্টি হাজার টাকা সহ দুটো মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয় ডাকাতরা।

ভুক্তভোগী ও স্থানীয় সহায়তাকারীদের বরাত দিয়ে জানা যায়  উপজেলার ভিরাল্লা -বারেরা সড়কের কালর্ভাটের মাথায় পুলিশ পরিচয়ে (ভুয়া) দেবিদ্বার বারেরা গ্রামের  মৃত আঃ বারেক মিয়ার ছেলে দেবিদ্বার মা হার্ডওয়ার এর সত্বাধিকারী মোঃ জজ মিয়া(৩২) কে এলোপাথারি কুপিয়ে জখম করে তার ব্যবহৃত মটরসাইকেলটি ,নগদ ১,৬২,০০০টাকা সহ ব্যবসায়ীর ব্যবহৃদ দুটি মোবাইল ফোন নিয়ে যায় ৩ ডাকাত ।
ডাকাতি হামলায় আহত জজ মিয়া বলেন , “দোকান বন্ধ করে আমার কেনা ইয়ামাহ এফ জেড মটর সাইকেল এবং দোকানে সারাদিনে বিক্রির ১,৬২,০০০ টাকা নিয়ে বাড়িতে যাচ্ছিলাম । ভিরাল্লা ষ্টেশন থেকে বারুর রাস্তায় পৌছালে একটি মটরসাইকেল সহ তিন জন আমার গতিরোধ করে , এরপর ওরা বলে আমরা পুলিশ তোকে অনেক দিন যাবত খুজছি  তুই বাবা ব্যবসায়ী এইসব কথা বলে আমার মানিব্যাগ ও সাথে থাকা নগদ অর্থ হাতিয়ে নেয় । এবং তিন জন মিলে আমাকে এলোপাথারি কুপিয়ে জখম করে মটরসাইকেল নিয়ে যায় । এবং আমাকে বলে পিছনের দিকে না তাকিয়ে সোজা দৌড়াতে না হলে গুলি করবো ।
আমি আমার রক্ত পরা জখম শরীর নিয়ে দৌড়াতে থাকি , এরপর স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।”

পরে এই ঘটনা জানতে পেরে রাত প্রায় ১০.৪৫ মিনিটে সহকারী পুলিশ সুপার সেলিম মোহাম্মদ শেখ ডাকাতের হামলায় আহত জজ মিয়াকে দেখতে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন।
এ বিষয়ে তিনি সাংবাদিককে জানান, “ঘটনাটি সত্যিই দুঃখজনক এবং এই বিষয়ে দেবিদ্বার থানা পুলিশ জোর তদন্ত সহ  ডাকাতদের গ্রেফতারের দ্রুত চেষ্টা চালাচ্ছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে দোষীদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে ।  এ রিপোর্ট লেখার সময় থানায় লিখিত কোন অভিযোগ না হলেও মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: