কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা রয়েছে। পরিস্থিতি খারাপ হলে নির্বাচন স্থগিত করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) রাশেদা সুলতানা।

সোমবার (১৩ জুন) দুপুরে নগরীর ফয়জুন্নেসা বালিকা বিদ্যালয়ের প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের জন্য অয়োজিত ব্রিফিং অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আহসান হাবিব খান (অব.) বলেছেন, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনো ধরনের খারাপ ঘটনা এখনো যেহেতু ঘটেনি, তাহলে বলা যায় এখন পর্যন্ত পরিস্থিতি ভালোই আছে। নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সুষ্ঠু ভোটের জন্য নির্বাচন কমিশন প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

কুমিল্লা-৬ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, উনি একজন জনপ্রতিনিধি। উনারা আইন প্রণয়ন করেন। যদি উনারাই আইন না মানেন তাহলে আর কী বলার আছে। উনাকে তো আর আমরা টেনে-হিঁচড়ে নামাতে পারি না। এখানে ইজ্জত গেলো কার, আপনারাই বুঝুন।

ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন- রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরী, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, কুমিল্লা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

আগামী ১৫ জুন কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ১০৫ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ করা হবে। এবার মেয়র পদে পাঁচজন, কাউন্সিলর পদে ১০৮ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৩৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: