মো.জাকির হোসেনঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামে বুধবার জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনায় ১৭ জনের বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার রাতে নিহতের ছেলে হুমায়ূন কবির বাদী হয়ে ১২জন নামীয় ও অজ্ঞাত আরো ৪/৫জনকে আসামী করে বুড়িচং থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

বুড়িচং থানা অফিসার ইনচার্জ আকুল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, গত বুধবার সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থলে জেলা পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা আছে। নিহত ইব্রাহিমের ছেলে হুমায়ূন কবির বাদী হয়ে মোঃ অহিদ মিয়ার ছেলে সুরুজ মিয়াকে প্রধান আসামী করে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ৪/৫জনকে আসামী করে বুড়িচং থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই পুস্পবরণ চাকমা জানান, পুলিশ এ পর্যন্ত ৪ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। আটকৃতদের মধ্যে দু’জনকে কুমিল্লা বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে, বাকী দু’জন পুলিশ হেফাজতে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান চলছে।

উল্লেখ্য, উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর উত্তর-পূর্বপাড়ার মাউদগাজীর বাড়ীর মৃত আহসান উল্লাহর ছেলে ইব্রাহিম ও পার্শ্ববর্তী বাড়ীর মৃত আঃ হামিদের ছেলে অহিদ মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বুধবার দুপুরে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারী-পুরুষসহ কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে অহিদ মিয়া ও তাঁর ছেলেরা ইব্রাহিম’কে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে ও দা দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক ভাবে আহত করে। সংঘর্ষ থেমে গেলে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। ইব্রাহিমসহ গুরুতর আহতদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত ডাক্তার ইব্রাহিম’কে মৃত ঘোষনা করেন। আহতদের মধ্যে ৮ জন বর্তমানে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। এদের মধ্যে গুরুতর আহত অহিদ মিয়া’কে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: