আশিকুর রহমানঃ কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় অটোরিক্সা উল্টিয়ে চালকসহ ৪ জন আহত হয়। গতকাল ২৪ আগষ্ট শনিবার দুপুরে উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের রানীগাছ এলাকায় কুমিল্লা মিরপুর সড়কে এঘটনা ঘটে। পরে আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহতরা হলেন, উপজেলার ষাইটশালা গ্রামের হুমায়ুন কবিরের ছেলে আবু কাউসার (৩২), তার ভাই আক্তার হোসেন (২৮), একই গ্রামের আহসান উল্যাহর ছেলে অটোরিক্সা চালক শাহীন (২৮) এবং আবু কালাম। আহতদের মধ্যে আবু কাউসারের অবস্থা আশঙ্খাজনক দেখে কর্তব্যরত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।

এই ব্যাপারে আহত আক্তার হোসেন ও আবু কালাম জানান, ঘটনার দিন দুপুরে তারা উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের ষাইটশালা গ্রাম থেকে কুমিল্লা মিরপুর সড়কে অটোরিক্সায় করে মিরপুরের দিকে যাচ্ছিল। এসময় একই ইউনিয়নের রানীগাছ এলাকায় গিয়ে সফিক ডাক্তারের বাড়ী সংলগ্ন মোড়ে গিয়ে ঘুরানোর সময় অটোরিক্সাটি উল্টিয়ে যায়। এতে অটোরিক্সায় থাকা যাত্রীরা অটোরিক্সার নিচে এবং পিচ রাস্তায় পড়ে মারাক্তক ভাবে আহত হয়। পরে বিষয়টি স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এসময় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার কামরুল হাসান সোহেল আবু কাউসারের অবস্থা আশঙ্খাজনক দেখে কর্তব্যরত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এই ব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একজন জানান, অটোরিক্সাটি খুব দ্রুত গতিতে মিরপুরের দিকে যাচ্ছিল। রানীগাছ সফিক ডাক্তারের বাড়ী সংলগ্ন মোড়ে গিয়ে ঘুরানোর সময় অটোরিক্সাটি দ্রুত গতির কারণে উল্টিয়ে যায়। তিনি আরো জানান, অটোরিক্সা চালকরা কোন প্রকার নিয়ম শৃঙ্খলা না মেনেই বেপরোয়া ভাবে সড়কে অটোরিক্সা চালিয়ে যাচ্ছে। যার কারণে বিভিন্ন সময়ই এই ধরনের ঘটনা ঘটে আসছে। এব্যপারে অটোরিক্সা চালকেদের একটি নির্ধরিত গতিসীমার মধ্যে আবদ্ধ থাকা এবং সড়ক আইন মেনে চলা উচিৎ।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: