মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি; ভারতে পুলিশের গুলিতে নিহত ২

মহানবী হযরত মুহাম্মদকে (সা.) নিয়ে বিজেপি নেতা নূপুর শর্মার মন্তব্যের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলাকালীন রাঁচিতে সহিংসতায় দু’জন মারা গেছে এবং আরও ১০ জন আহত হয়েছে। আজ শনিবার (১১ জুন) সকালে দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি ও দ্য ওয়ারেরে এ তথ্য উঠে এসেছে।

এর আগে গতকাল শুক্রবার (১০ জুন) ডেইলি মার্কেটের কাছে রাঁচি মূল সড়কে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করছিলেন কয়েক হাজার মুসলিম। এ সময় তাদের ওপর পুলিশ গুলি চালালে অন্তত দু’জন নিহত এবং ১০ জনের বেশি গুরুতর আহত হন। ভারতীয় গনমাধ্যমে বলা হয়েছে, বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি চালিয়ে ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করলে কিছু বিক্ষোভকারী পাথর ছুঁড়লে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। পরবর্তীতে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে আন্দোলনকারীরা। এ ঘটনায় রাঁচি মূল সড়ক ও ডেইলি মার্কেট এলাকাসহ শহরের বিভিন্ন জায়গায় কারফিউ জারি করা হয়েছে।

নগর পুলিশের প্রধান অংশুমান কুমার নিশ্চিত করেছেন যে গুলিবিদ্ধ হয়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বলেন, আটজন দাঙ্গাবাজ এবং চারজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের রিমস এবং অন্যান্য হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আমরা প্রথমে সহিংসতার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করব, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করব এবং তারপর তাদের গ্রেপ্তার করব।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি জ্ঞানবাপী মসজিদ নিয়ে ভারতের একটি টেলিভিশন চ্যানেলের অনুষ্ঠানে নূপুর শর্মা মহানবীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেন বলে অভিযোগ উঠে। বিতর্কিত মন্তব্য করেন বিজেপি নেতা নবীন কুমার জিন্দালও। এরপরই শুরু হয় সমালোচনা আর বিক্ষোভ। চলছে সংঘর্ষও। বিভিন্ন রাজ্যে এরই মধ্যে নূপুরের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে ক্ষোভ পৌঁছেছে বিভিন্ন মুসলিম দেশে। কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছে বিভিন্ন দেশ। এ ইস্যুতে পরিস্থিতি জটিল আকার ধারণ করায় বিজেপির পক্ষ থেকে নূপুর ও নবীনকে ছয় বছরের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে।

এছাড়া মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে কটুক্তি করার জেরে মুসলিম বিশ্বের ক্রমবর্ধমান ক্ষোভ ও তোপের মুখে পড়েছে ভারত। মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী দেশগুলোসহ এখন পর্যন্ত বিশ্বের অন্তত ১৫টি দেশ ভারতের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে।দেশগুলো তাদের নিন্দা ও নবী মুহাম্মদের সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্যের কারণে ভারত সরকারকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছে।

সূত্রঃ bd24live

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  

ফেসবুকে আমরাঃ