মুরাদনগরে নৌকা না পেয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলার অভিযোগ

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক না পেয়ে প্রতিপক্ষের নেতা-কর্মীর উপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার টনকী ইউনিয়নের টনকী গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে সাবেক মেম্বারসহ ০৬জন আহত হয়েছেন। কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আহতরা রবিবার এসব তথ্য জানান।

নৌকা প্রতীকের সমর্থক আহত আবদুল মতিন মেম্বার বলেন,উপজেলার মাজুর গ্রামের মাহফিল থেকে শনিবার রাতে আমরা চৈনপুর গ্রামে যাচ্ছিলাম। পথে টনকী গ্রামে আমাদের সিএনজি অটোরিকশায় হামলা চালায় মনোনয়ন না পাওয়া জাকির চেয়ারম্যানের লোকজন। জাকির চেয়ারম্যানের কাকা শাহ আলমের নেতৃত্বে আনিসুর রহমান তানিম, সুজন, মোস্তফা, মাসুদ, সফি উল্লাহ, আজ্জম, শরীফ, পিট্টুসহ ৮-১০ জন আমাদের উপর হামলা করে। রামদা, রড, লোহার পাইপের হামলায় জমির উদ্দিন, আবদুল কাইয়ুম, ওলি উল্লাহ, চালক সেলিম, খতিব মাওলানা আবদুল হাকিম আহত হন।

নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আনিসুর রহমান সরকার বলেন, জাকির দীর্ঘদিন মানুষকে শোষণ করেছেন। তার প্রতি মানুষ বিরক্ত। তাই দলীয় ভাবে তাকে বাদ দিয়ে আমাকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়। আমি ঢাকা ছিলাম। সে নৌকা না পেয়ে আমার নেতা-কর্মীর উপর হামলা করে। আমি পুলিশকে অবগত করেছি। সোমবার মামলা দায়ের করবো।

অভিযুক্ত মো. জাকির হোসেন সরকার বলেন, আমার বিরুদ্ধে নানা চক্রান্ত হচ্ছে। আমি হামলার বিষয়ে কিছু জানি না। অভিযোগ মিথ্যা।
বাঙ্গরা বাজার থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, শনিবার রাতে টনকী বাজারে একটু সমস্যা হয়ে হয়েছিলো। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তারা কেউ এখন পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

ফেসবুকে আমরাঃ