ডেস্ক রিপোর্টঃ বিএনপির মুখে গণতন্ত্রের কথা বলা মানায় না। বিএনপির গণতন্ত্র আমরা দেখেছি। তাদের গণতন্ত্র একুশে আগষ্ট গ্রেনেড হামলা, মানুষ খুন, হত্যা, রাহাজানি আর নির্যাতন। বর্তমান সরকারের নেতৃত্বে দেশ উন্নত হয়েছে। দেশে শান্তি ফিরে এসেছে।

বাংলাদেশ আজ সম্ভাবনাময়ী দেশ। সম্ভাবনার দুয়ার খুলেছে। বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে বলেছিল দেশে খাদ্য ঘাটতি থাকা ভাল। খাদ্য ঘাটতি থাকলে বিদেশ থেকে ভিক্ষা পাওয়া যাবে। সেদিন শেখ হাসিনা প্রতিবাদ করেছিল। তাই আজ আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় এসে দেশে খাদ্য ঘাটতি পূরণ করেছে। দেশে মাথাপিছু আয় বেড়েছে। খাদ্য উদ্বৃত্ত রয়েছে। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার দূর্নীত আজ আদালত কর্তৃক প্রমাণিত। এখানে কারো কোন হস্তক্ষেপ ছিলোনা।

লাকসাম উপজেলায় পরিষদের উদ্যোগে শনিবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ চত্বরে মাননীয় প্রধাণমন্ত্রীর যার জমি আছে ঘর নেই নিজ জমিতে গৃহ নির্মান প্রকল্পের আওতায় নির্মিত ঘরের চাবি হস্তান্তরের শুভ উদ্বোধন, এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় উপজেলার বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের মাঝে সাইকেল বিতরনসহ সুবিধাভোগীদের মাঝে বিভিন্ন উপকরণ সামগ্রী বিতরন অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি এ কথাগুলো বলেন।

লাকসাম উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মহব্বত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম সাইফুল আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি তাবারক উল্লাহ কায়েস, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা, ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহম্মদ, নিজামউদ্দিন শামীম, ওমর ফারুক, হারুন অর রশিদ, রুহুল আমিন, আবদুর রশিদ সওদাগর।

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে। কোনো অপশক্তি এই উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নিরলস ভাবে কাজ করছেন। ক্ষুধা-দারিদ্র মুক্ত অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনের মধ্যদিয়ে আগামী ২০৪১ সালের আগেই বাংলাদেশ উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ। মানুষের জীবন যাত্রার মান হবে অনেক বেড়েছে। এই দেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না। প্রতিটি ঘরে বিদ্যুতের আলো জ্বলবে। নারি পুরুষের সমান অংশগ্রহণের মাধ্যমেই সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলা সম্ভব।

তিনি বলেন, গ্রাম হবে শহর। প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা বাস্তবায়নে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারী বিশেষ করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করছেন। বর্তমান সরকারের প্রশংসনীয় এমন উদ্যোগ বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে ১০০ গৃহহীন পরিবারের মাঝে বরাদ্দকৃত ঘরের চাবি হস্তান্তর করেন। এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের মাঝে সাইকেল, কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ যেমন-পাওয়ারটিলার, সেচযন্ত্র, বীজ, সার এবং হতদরিদ্রদের মাঝে বিভিন্ন অনুদানের চেক বিতরণ করেন।