ফাইল ফটো

কুমিল্লার নগরীসহ জেলার ১৭ উপজেলার ১০ হাজার ৫৪৯ মসজিদে শনিবার (১ আগস্ট) ঈদুল আজহার জামাত হবে। নগরীর ১৩৫টি মসজিদে জামাত হবে সকাল ৮টায়। ইউনিয়ন পর্যায়ের অধিকাংশ মসজিদে জামাত সকাল ৯টায়। ইসলামিক ফাউন্ডেশন কুমিল্লা কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, কান্দিরপাড় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, ছাতিপট্টি জামে মসজিদ, পুলিশ লাইন জামে মসজিদ, বন্দিশাহী জামে মসজিদ, পুরাতন ফেরীঘাট জামে মসজিদ, মুন্সেফ বাড়ি জমে মসজিদ, স্টাফ কোয়ার্টার জামে মসজিদ, কেটিসিসি জামে মসজিদ, ঝাউতলা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, দক্ষিণ চর্থা থিরাপুকুরপাড় জামে মসজিদ, আদালত জামে মসজিদ, কালিয়াজুরী বড় মসজিদ, থানা জামে মসজিদ, জানু মিয়া জামে মসজিদে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত হবে।

এছাড়াও বাবুস সালাত জামে মসজিদ সকাল ৭টায়, উত্তর আশ্রাফপুর মাজার মসজিদ সোয়া ৭টা, তালপুকুরপাড় জামে মসজিদ, দারোগা বাড়ি শাহ আব্দুল্লাহ গাজীপুরী জামে মসজিদ, ছোটরা পশ্চিম পাড়া জামে মসজিদ, রেইসকোর্স সুন্নিয়া জামে মসজিদ ও টিঅ্যান্ডটি জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায়, নবাব বাড়ী চৌমুহনী জামে মসজিদে সোয়া ৮টায় ও শাহসুজা জামে মসজিদ সাড়ে ৮টায় ঈদের নামাজের জামাতের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহের ইমাম মুফতি ইব্রাহীম ক্বাদেরী জানান, কান্দিরপাড় মসজিদে ঈদের প্রথম জামাত সকাল ৮টায় হবে। যদি মুসল্লি সংখ্যা বেশি হয় তবে পরপর আর দু’টি জামাত করার প্রস্তুতি রয়েছে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন কুমিল্লার উপ-পরিচালক সরকার সারোয়ার আলম বলেন, যারা অসুস্থ বা রোগীর সেবায় নিয়োজিত ছিলেন তাদের মসজিদে না আসতে বলা হয়েছে। সবাই বাড়ি থেকে ওজু করে আসতে হবে। মাস্ক পরে আসবে ও নিজ নিজ জায়নামাজ সঙ্গে নিয়ে আসবে। কোলাকুলি না করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কার্পেট বা জায়নামাজ বিছানো যাবে না। মসজিদ জীবাণুমুক্ত করতে হবে। দূরত্ব রেখে মুসল্লিদের দাঁড়ানোর ব্যবস্থা করতে হবে। প্রয়োজনে একাধিক জামাতের ব্যবস্থা করতে হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: