কুমিল্লা থেকে ঢাকা-দাউদকান্দি-কোম্পানীগঞ্জ-চাঁদপুরসহ বিভিন্ন সড়কে গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করে এবং অতিরিক্ত ভাড়া আদায়সহ নানা অভিযোগে রোববার দিনব্যাপি জেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে জরিমানা আদায় করা হয়।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মহানগরী, আলেখার চর, পদুয়ার বাজার, জাঙ্গালিয়া ও ক্যান্টনমেন্ট বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এসব মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, কুমিল্লার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আবুল ফজল মীরের নির্দেশনায় কুমিল্লা মহানগরী, আলেখার চর, পদুয়ার বাজার, জাঙ্গালিয়া ও ক্যান্টনমেন্ট বাসস্ট্যান্ড এলাকার মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। সম্প্রতি কুমিল্লা জেলায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষিতে যথাযথভাবে গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালিত হচ্ছে কিনা, পথচারী ও দোকান-পাটে ক্রেতা-বিক্রেতাগণ মাস্ক পরিধানসহ যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে কিনা এবং করোনা পরিস্থিতিতে সীমিত পরিসরে যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে কিনা তা তদারকি করতে এই মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়।

এসময় মাস্ক পরিধান না করাসহ স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করার দায়ে ১২টি মামলায় মোট ৪১ হাজার ৮০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আবু বকর সরকার মোবাইল কোর্টের অভিযানে সহযোগিতা করেন জেলা আনসারের সদস্যবৃন্দ। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধসহ অন্যান্য অপরাধ নিবারণে জেলা প্রশাসনের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: