মো. ওমর ফারুকঃ কুমিল্লার লালমাই উপজেলার যুক্তিখোলা বাজারে এমবি মেডিকেল হলের মালিক পল্লী চিকিৎসক মনোজিতের বিরুদ্ধে ভূল ঔষধ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ওই ঔষধ সেবনে মৃত্যু শর্য্যায় এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধু, সে উপজেলার আজবপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী মর্জিনা বেগম। গৃহবধুর স্বামী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, গত বৃহস্প্রতিবার রাতে তার স্ত্রীর জন্য ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন নিয়ে ঔষধের জন্য যুক্তিখোলা বাজারে এমবি মেডিকেল হলে গেলে মনোজিত ভিসেট (৫০ এমজি) পরিবর্তে রিসেট (৬৬৫ এমজি) ট্যাবলেট দেন। বাড়ীতে নিয়ে শনিবার ঔষধ সেবন করলে রোগীর বমি, পেটে ব্যাথা শুরু হয়। ঐ ফার্মেসীর মালিক মনোজিতকে ফোন করলে সে উল্টো পাল্টা বকাঝকা করে।

পরে লাকসাম উপজেলার একটি হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। বর্তমানে ঐ গৃহবধু (রোগী) মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। সাংবাদিকদের দেখে ফার্মেসী ছেড়ে পাশের ফার্মেসীর মালিক ইন্দ্রজিতের সহযোগিতায় পালিয়ে যায় মনোজিত। গৃহবধুর স্বামী জাহাঙ্গীর আলম প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। জানা যায়, ঐ বাজারের ইন্দ্রজিত নামের এক ব্যাক্তির সেবা ফার্মেসী নামে আরেকটি দোকান আছে ঐ দোকানটিতে চোরাই পথে আনা ভারতীয় ঔষধ মজুদ করে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করেন। তার দোকানে ঔষধের সাথে বিভিন্ন যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট রয়েছে। চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র ছাড়া এন্টিবায়োটিক ঔষধ বিক্রি করছেন।

২৪-০৬-২০১৯
০১৭৫৮০৭৫১০২