ডেস্ক রিপোর্টঃ মঞ্চের প্রথম সারিতে বসতে না পেরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সামনে প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিতের অভিযোগ উঠেছে অভিভাবক ম্যানেজিং কমিটির চার সদস্যের বিরুদ্ধে। কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের বিবির বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও শিক্ষক বিদায় অনুষ্ঠানে এই ঘটনা ঘটে। প্রধান শিক্ষকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় শনিবার ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অভিযুক্ত চার সদস্যের বিরুদ্ধে বিচারের দাবি তুলে বিক্ষোভ করে। শিক্ষকের শরীরে হাত তোলা এবং অকথ্য ভাষায় গালাগালি করায় বিদ্যালয়ে ওই চার সদস্যকে অব্যহতির ঘোষণার দাবিও করে শিক্ষার্থী।

অভিযুক্তরা হলেন, বিবির বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আক্তার সরকার, গাজী মোহাম্মদ আবুল হোসেন, মো. শামছুল আলম ও হাবিবুর রহমান। তাদের দাবি শনিবার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তাদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে হামলা ও ভাংচুর করেছে।

বিবির বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ভুক্তভোগি জাকির হোসেন ভূঁইয়া জানান, গত বৃহস্পতিবার (৩০ জানুয়ারি) ছিল বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান। সেই সাথে বিদায়ী দুই শিক্ষককে অনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে বিদায় দেওয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মামুন। অনুষ্ঠানের মঞ্চের সামনের সারিতে প্রধান ও বিশেষসহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ ছিলেন। জায়গা না হওয়ায় অভিভাবক ম্যানেজিং কমিটি’র সদস্যরাসহ অন্যান্য অতিথিদের দ্বিতীয় সারিতে বসার আহবান জানানো হয়।

সুন্দরভাবে অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি চেয়ারম্যান চলে যাওয়ার পর অভিভাবক ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আক্তার, আবুল হোসেন, শামছুল আলম ও হাবিবুর রহমান জানায় দ্বিতীয় সারিতে বসায় তাদের মান-সম্মান ক্ষুন্ন হয়েছে। এই ধরণের অভিযোগ তুলে তারা আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে। মারধরের হুমকিও দেয়। একপর্যায়ে হাবিবুর রহমান নামে ওই সদস্য আমার শরীরে হাত তুলে আঘাত করে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সামনে আমাকে লাঞ্ছিত করে।

লাঞ্ছিতের বিষয়টি বিদ্যালয়ের সভাপতি মো. ইকবাল মজুমদার এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও বিদ্যালয়ের বিদ্যোৎসাহী সদস্য মামুনুর রশিদ মামুনের কাছে মৌখিক অভিযোগ করি।

শিক্ষক লাঞ্ছিতের ঘটনায় বিক্ষোভে অংশ নেওয়া রাকিবুল হাসান, মাসুক, তসলিম, লিজা আক্তারসহ একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, একজন অভিভাবক হয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকে লাঞ্ছিত করা আমরা মেনে নিতে পারছি না। যারা এই ঘটনার সাথে জড়িত আমরা তাদের বিচার চাই। তাদেরকে বিদ্যালয়ে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হোক।

বিবির বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি মো. ইকবাল মজুমদার বলেন, আইনিভাবে আমরা বসে সিদ্ধান্ত নিয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষকে লাঞ্ছিতের বিষয়ে জড়িতদের বিরুদ্ধে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডকে লিখিতভাবে জানানো হবে।

জগন্নাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও বিবির বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের বিদ্যোৎসাহী সদস্য মামুনুর রশিদ মামুন বলেন, মঞ্চের বসা নিয়ে একজন প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিত করা হয়েছে এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আইনের মাধ্যমে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য আমরা কাজ করবো।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: