কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে এক কৃষকের ফসলি জমিতে শত্রুতাবশত বিষ প্রয়োগ করেছে দুর্বৃত্তরা। তাতে বন্ধক নেয়া ৪৫ শতক জমির ফসল পুরোপুরি নষ্ট হয়ে গেছে। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক উপজেলার মক্রবপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে মো. ইউসুফ।
এ বিষয়ে মামলা দায়ের না হলেও অভিযোগ করা হয়েছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কৃষক ইউসুফ স্থানীয় আব্দুল হালিমের কাছে থেকে ৯০ হাজার টাকায় ৪৫ শতক জমি বন্ধক নিয়ে চাষাবাদ করছেন। কিন্তু গত কয়েক বছর স্থানীয় প্রভাবশালী মহল সেই জমিতে পানি দিতে বাধা দেয়ায় বোরো আবাদ কঠিন হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় ইউসুফ জমিটিতে শাক সবজি চাষ করছেন। রবিবার রাতে জমিটিতে বিষ প্রয়োগ করে ফসল নষ্ট করে দেয় দুর্বৃত্তরা। একই গ্রামের আব্দুল মমিনের ছেলে সিরাজুল ইসলাম, বেলাল হোসেন ও শিপন জমিতে বিষ প্রয়োগ করতে পারেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। অভিযুক্তরা তাদের বাড়িতে চলাচলের রাস্তাসহ ৫টি স্থানে শত্রুতাবশত প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছেন বলেও ইউসুফের দাবি।

কৃষক ইউসুফ ঘটনার ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও কৃষি কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. মোস্তফা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘ঘটনাটি পারিবারিক কারনে ঘটতে পারে। অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে লোক পাঠিয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

সূত্রঃ কালেরকন্ঠ