মোঃ জুয়েল রানাঃ কুমিল্লার তিতাস উপজেলার মনাইরকান্দি গ্রাম থেকে বিস্ফোরক জাতীয় বড় আতশবাজি ফুটনোর বিপুল পরিমান যন্ত্র উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। রবিবার (১২ মে) বেলা আনুমানকি ১২টায় ওই গ্রামের মাহবুব মাস্টারের পরিত্যক্ত ঘর থেকে উদ্ধার করা হয় এই আধুনিক যন্ত্র।

থানা পুলিশ সূত্রে জানায়ায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাজীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুব মাস্টারের মনাইরকান্দিস্থ তাহার পুরাতন বাড়িতে পরিত্যক্ত ঘর থেকে একটি ব্যাগে রাখা পিস্তল স্ব-দৃশ্য এসএসএফ পাইপ, ইলেকট্রিক সার্কিট, অটো সুইচ ও গ্যাস বার্ণার সংযুক্ত করে তৈরী করা ১৪ ইঞ্চি লম্বা এবং ২ ইঞ্চি গোলাকার ৪ টি, ৮ ইঞ্চি লম্বা ও ১ইঞ্চি গোলাকার ৫টি, বড় আতশ বাজি স্ব-দৃশ্য ইলিকট্রিক তার সংযুক্ত বিস্ফোরক ১৪ ইঞ্চি লম্বা ২টি এবং ৮ ইঞ্চি লম্বা ১৫টি এবং একটি প্লাস্টিকের বস্তায় রক্ষিত পাইপগান তৈরীর সরঞ্জাম লোহার পাইপ ৬টি ও গ্যাস স্প্রে বোতল ১টি উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত প্রতিটির যন্ত্রের গায়ে লিখা রয়েছে প্রিন্স জি বি ২০০১ পিজো গ্যাস বার্ণার এবং মাইক্রো টর্চ ।

এবিষয়ে তিতাস থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ মোহাম্মদ আহসানুল ইসলাম বলেন, উদ্ধারকৃত যন্ত্রপাতি অস্ত্র না। এই গুলি হলো বড় ধরনের আতশবাজি ফুটানোর আধুনিক যন্ত্র। তবে ধারণা করা হচ্ছে নির্বাচনী সহিংসতায় ব্যবহারের জন্য এইগুলি আনা হয়ে ছিলো। এদিকে ঘরের মালিক মাহবুব মাস্টার বলেন আমরা ওই বাড়িতে কেউ থাকিনা এবং আমরা ওই বাড়িতে যাইওনা।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: