ডেস্ক রিপোর্টঃ দক্ষিণ আফ্রিকার থেম্বিসায় ফম্লং নামক স্থানে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামের দোকানে ৩ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। ১০ মে সন্ধ্যা ৬টায় ইফতারের আগে দোকানে একদল ডাকাত প্রবেশ করে এলোপাতাড়ি গুলি করতে থাকে। এ সময় তিন বাংলাদেশি আহত হন।

আহতরা হলেন তাজুরুল ইসলাম, মো. মহিউদ্দিন, মো. খাইরুল। স্থানীয় বাংলাদেশিরা খবর পেয়ে তাদেরকে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে তারা থেম্বিসা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চিকিৎসক জানিয়েছে, আহতরা এখনো বিপদমুক্ত হয়নি, মহিউদ্দিনের পায়ের গুলি দ্রুত অপারেশন করাতে হবে। তাজুরুল ইসলাম ও মো. মহিউদ্দিন আপন দুইভাই বলে স্থানীয় প্রবাসীরা জানান।

তাদের দেশের বাড়ি দোরস খোলা কুমিল্লা এবং খাইরুলের দেশের বাড়ি মাওরাবাড়ি, কুমিল্লা।

এর আগে, ক্ষিণ আফ্রিকায় বিশ্বের অনেক দেশের অভিবাসী বাস করেন। দেশটির সরকারি তথ্যমতে ২০১৬ সালেই অভিবাসীর সংখ্যা ছিল ২০ লাখেও বেশি।

যারা নানা সময়ে ভাগ্যের অন্বেষণে সেখানে গিয়েছেন। তাদের মধ্যে বাংলাদেশির সংখ্যাও নেহায়েত কম নয়। তবে সম্প্রতি বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি দেশটিতে সন্ত্রাসী হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন।

প্রতিদিনই এমন অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুর সারি বৃদ্ধি পাচ্ছে। ভুক্তভোগীরা পাচ্ছে না কোনো বিচার বা সহায়তা। সব সময়ই অপরাধীরা ঘুরে বেড়ায় চোখের সামনে। আনা হচ্ছে না বিচারের আওতায় করা হচ্ছে না কোনো মামলা।

আফ্রিকায় বাংলাদেশ কমিউনিটির তেমন কোনো সক্রিয়তা কিংবা এসব মৃত্যুর ঘটনায় শাস্তি না হয় দিনে এমন খুনের ঘটনা বেড়েই চলেছে।অন্যদিকে এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ হাইকমিশনার কোনো প্রদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে প্রবাসী বাংলাদেশিরা অভিযোগ তুলেছে।