বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার জগতপুর গ্রামে জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধ কে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার ইফতারের আগে প্রতি পক্ষের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা লুটপাট চালিয়েছে।এ ঘটনায় ৬-৭ জন আহত হয়েছে, ৯ বাড়ি ভাংচুর,স্বর্নাংকার, মালামাল লুটপাটের করেছে। এঘটনায় বুড়িচং থানায় বৃহস্পতিবার রাতে নামীয় ২৮ জন এবং অজ্ঞাত ৪০-৫০ জন কে আসামী করে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে ঘটনা স্হলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্হানীয় সূত্র জানায় উপজেলার সদর ইউনিয়ন জগতপুর গ্রামের মৃত হোসেন আলীর ছেলে মোঃ মোছলেম উদ্দিনের সাথে একই বাড়ীর আব্দুর গফুর এর ছেলে আবুল কাসেমএর জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধ চলে আসছ।এছাড়া এসংক্রান্ত ঘটনায় আদালতে মামলা চলছে।গত দুই – একদিন ধরে উভয় পরিবারের মধ্যে উত্তেজনা চলছে।

বৃহস্পতিবার ইফতারের আগে একই গ্রামের সাবেক মেম্বার এছহাক,কাউছারের নেতৃত্বে দেড় শতাধিক লোক দেশীয় অস্ত্র সশ্ত্র নিয়ে মোঃ মোছলেম উদ্দিন গ্রাম পুলিশের বাড়িতে হামলা চালায়।এ সময় হামলা কারীরা ৯-১০ বাড়ী ঘর ভাংচুর লুটপাট করে। হামলা কারীরা প্রতি পক্ষের ঘরের টিনের ভেড়া কুপিয়ে তচ নছ করেএবং আলগা করে ফেলে দেয়।ঘর থেকে টিভি ফ্রিজ, নগদ টাকা,স্বর্নাংকার লুটপাট করে, সব মিলিয়ে প্রায় ১০-১২ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়।হামলায় আহতরা হল ফিরোজা বেগম,স্বামী আব্দুল বারেক,মনোয়ারা বেগম স্বামী ফয়সাল মিয়া,জোহরা বেগম স্বামী খলিল মিয়া,রবিউল পিতা ফয়সাল মিয়া সহ আরও ৪-৫ জন।আহতরা বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছে। খবর পেয়ে বুড়িচং থানার পুলিশ ঘটনাস্হলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এব্যপারে বুড়িচং থানার এস আই পুষ্প বরন চাকমা বলেন বশত বাড়ির জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধ নিয়ে একই বাড়ির প্রতিবেশীর মধ্যে এঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনার পর থেকে সারা রাত ওই এবং শুক্রবার সারাদিন অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা হয়েছে।