কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ পশ্চিমপাড়া গ্রামে নির্মানাধীন দালানঘর রাতের আধারে ভাংচুর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ঘরের মালিক খোকন মিয়া ছেলে রাকিবুল হাসান।

এব্যাপারে রাকিবুল হাসান জানান, আমাদের একই গ্রামের মৃত সাফর আলীর ছেলে আতাউর রহমান খান ও তার ভাই সিদ্দিকুর রহমান খানের নেতৃত্বে ১৫-২০ জন লোক সংঘবদ্ধ হয়ে গত ৭নভেম্বর শনিবার মধ্য রাতে হামলা চালিয়ে আমাদের নির্মানাধীন দালান ঘর ভাংচুর করে। এ সময় আমরা বাধা প্রদান করলে হামলাকারীরা তাদের হাতে থাকা দা, ছেনা, হাতুরি, লোহার রড ও লাঠি প্রদর্শন করে ভয়ভীতি দেখায় এবং প্রাণ নাসের হুমকি দেয়। এ সময় আমরা এ ঘটনায় থানা পুলিশকে বিষয়টি জানালে ভাংচুরকারীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌছে পরিদর্শন করেন।

এ ব্যাপরে তদন্তকারী কর্মকর্তা সহকারী পুলিশ পরিদর্শক মামোনুর রশিদ জানান, থানা অফিসার ইনচার্জ এর নির্দেশে আমি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি এবং ভাংচুরের বিষয়টি সত্যতা পাই। নির্মানাধীন ঘরের জায়গা নিয়ে উভয় পক্ষের পূর্ব থেকে অভিযোগ রয়েছে।

অভিযোক্ত আতাউর রহমান খান বলেন, এই জায়গাটি মালিক অমি। এই জায়গায় ঘর নির্মান করতে আমি বাধা প্রদান করেছি এবং আমার জায়গায় ঘর নির্মান করায় আমি তা ভেঙ্গে দিয়েছি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: