কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের মহালক্ষীপাড়া গ্রামে ঘুমন্ত অবস্থায় বড় ভাইকে কুপিয়ে হত্যাকারী ঘাতক ছোট ভাই হাফেজ আবু কাউসারকে বরিশাল থেকে গ্রেফতার করা করেছে। গত শুক্রবার সকালে ব্রাহ্মণপাড়া থানার এসআই মো. রাজু আহম্মেদ সঙ্গীয় ফোর্স সহ বরিশাল কোতয়ালী থানা পুলিশের সহযোগিতায় বরিশাল সদরের মকরম প্রতাব এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গাছের ঢালা কাটাকে কেন্দ্র করে গত ১৭ এপ্রিল শুক্রবার দুপুরে কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের মহালক্ষীপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের ছেলে কুমিল্লার কাপ্তান বাজার তাজ রৌশন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আবুল ফজল ভুইয়া (৪৫) ও তার ছোট ভাই হাফেজ আবু কাইছারের মধ্যে কথা কাটা কাটি হয়। পরে এরই সূত্র ধরে হাফেজ আবু কাউছার তার হাতে একটি বড় ছুরা নিয়ে আবুল ফজল ভুইয়ার বসত ঘরে প্রবেশ করে ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে এলোপাতাড়ী কুপিয়ে ও বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে গুরত্বর আহত করে। এসময় তার ছেলে ফাহিম (১৫), ফয়সাল (৮)স্ত্রী ফারজানা অাক্তার (৪০) তাকে বাচাতে গেলে তাদেরকেও এলোপাতারী কুপিয়ে আহত করে।

হামলার পর ঘাতক ছোট ভাই হাফেজ আবু কাউসার তার স্ত্রীকে নিয়ে মোটর সাইকেল যোগে এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। তাৎক্ষনিক ভাবে এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে প্রেরন করে। সেখানেও তাদের অবস্থা আশঙ্খাজনক দেখে কুমেকের কর্তব্যরত চিকিৎসক আহত মধ্যে আবুল ফজল ভুইয়া ও তার ছেলে ফাহিমকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরন করে। স্ত্রী ফারজানা আক্তার ও তার ছোট ছেলে ফয়সালকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করে। ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে গিয়ে গত ১৮ এপ্রিল রাত ১০টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় আবুল ফজল ভুইয়া মারা যায়।

পরে এই ব্যাপারে নিহতের শ্যালক ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার দরপনারায়নপুর গ্রামের মৃত সেকান্দর আলীর ছেলে মাহবুব হোসেন বাদী হয়ে ঘাতক হাফেজ আবু কাউছার ও তার স্ত্রী মোসাঃ জান্নাতকে আসামী করে ব্রাহ্মণপাড়া থানায় একটি হত্যা মামলা করে।

গ্রেফতারের বিষয়টি স্বীকার করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাজু আহম্মেদ জানান, ঘাতক হাফেজ আবু কাউছার ও তার স্ত্রী মোসাঃ জান্নাত ঘটনার পর থেকেই আত্মগোপনে ছিলো। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তি ব্রাহ্মণপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ আজম উদ্দিন মাহমুদ এর নির্দেশে সঙ্গীয় ফোর্স তানভীর ও শান্ত সহ বরিশাল কোতয়ালী থানা পুলিশের সহযোগিতায় বরিশাল সদরের মকরম প্রতাব এলাকা থেকে গতকাল শুক্রবার সকাল ১০ টায় ঘাতক আবু কাউছারকে গ্রেফতার করেছি।

ব্রাহ্মণপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ আজম উদ্দিন মাহমুদ জানান, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের মহালক্ষীপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের ছেলে স্কুল শিক্ষক আবুল ফজল ভুইয়াকে কুপিয়ে হত্যা ও তার স্ত্রী এবং দুই ছেলেকে কুপিয়ে আহত করার বিষয়টি উল্যেখ করে নিহতের ছোট ভাই ঘাতক আবু কাউসার ও কাউসারের স্ত্রী মোসাঃ জান্নাতকে এজাহার নামীয় আসামী করে নিহতের শ্যালক ঘটনার দিন ব্রাহ্মণপাড়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ঘটনার পর থেকে ঘাতক আবু কাউসার ও তার স্ত্রী আত্মগোপনে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১২ জুন শুক্রবার সকালে ঘাতক আবু কাউসারকে বরিশাল জেলা সদর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: