কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে অন্যের জমি বাৎসরিক চুক্তিতে বর্গা নিয়ে দ্রুত ফলনশীল উন্নত জাতের পেঁপে বাগান করে দুই দফা গাছ মরে যাওয়ায় তিন লক্ষাধিক টাকা লোকসান দিয়ে পথে বসেছে কৃষক হানিফ মোল্লা। লোকসান পুষিয়ে উঠতে ভুক্তভোগী কৃষক হানিফ ছুটছেন সরকারি-বেসরকারী সাহায্য দাতা সংস্থার দ্বারে দ্বারে। তিনি উপজেলার কনকাপৈত ইউনিয়নের আতাকরা গ্রামের মরহুম বারেক মোল্লার পুত্র। পর্যাপ্ত সাহায্য পেলে তিনি আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, হানিফ মোল্লা দীর্ঘ দশ বছর ধরে আতাকরা গ্রামের পেয়ার আহমেদের ৬০ শতক জমি বাৎসরিক চুক্তিতে বর্গা নিয়ে নানা প্রকার সবজি সহ ফসল উৎপাদন করে বিক্রি করে। এছাড়া অবসরে সিএনজি অটোরিকশা চালিয়ে ভালোভাবে পরিবার পরিচালনা করে। চার-পাঁচ মাস আগে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগী নামিয়ে ফেরার পথে হাইওয়ে পুলিশ তাঁর সিএনজি অটোরিকশাটি আটক করে নিয়ে যায়। অর্থাভাবে তিনি সিএনজি অটোরিকশাটি এখনও ছাড়াতে পারেনি।

এদিকে চলতি বছর কৃষক হানিফ মোল্লা সবজি ও ফসল উৎপাদন না করে ভালো মুনাফার আশায় উন্নত জাতের পেঁপে গাছের বাগান করে। প্রথম দফায় লাগানো গাছগুলো বিভিন্ন পোকা ও ভাইরাসের আক্রমণে নষ্ট হয়ে যায়। পরে ঋণ নিয়ে আবারও পেঁপে গাছের চারা রোপন করে। সতর্কতা অবলম্বন করে অভিজ্ঞ কয়েকজন বাগানীর পরামর্শে পোকা ও ভাইরাসের আক্রমণ থেকে বাগান রক্ষার্থে বিভিন্ন সময় ওষুধ ছিটায়। এছাড়া বাগানের আগাছা পরিষ্কারসহ নানা রকম যতœ ও পরিচর্যা নেয়। দ্বিতীয় দফায় গাছগুলো কিছুটা বড়ও হয়। কিন্তু ফল ধরার সময় হওয়ার মাস খানেক আগেই পূণরায় পোকার আক্রমণ ও ভাইরাসজনিত সমস্যায় বাগানের ৯০ শতাংশ গাছ মরে যায়। ফলে কৃষক হানিফ মোল্লার লোকসান হয় তিন লক্ষাধিক টাকা। বৃহস্পতিবার সরেজমিন পরিদর্শন করে এ চিত্র দেখা গেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক হানিফ মোল্লা বলেন, ‘৬০ শতক জমির বাগানে সারিবদ্ধভাবে লাগানো দ্রুত ফলনশীল উন্নত জাতের পেঁপে গাছের প্রায় সবগুলোই মারা গেছে। সামান্য কয়েকটি গাছ বেঁচে থাকলেও ফলন নেই বললেই চলে। এতে লোকসান গুনতে হয়েছে তিন লক্ষাধিক টাকা। যার কারণে এখন আমি বেশ দুশ্চিন্তায় আছি। মানুষের ঋণের টাকা পরিশোধ করার কোনো পথ খুঁজে পাচ্ছি না। জানিনা এখন কি করবো। তবে, সরকারি সহযোগিতা পেলে আবার চেষ্টা করে দেখবো। আল্লাহ্ যদি সহায় হয়, আবার আমার ভাগ্যের চাকা ঘুরতেও পারে’।
এ ব্যাপারে উপ-সহকারী কৃষি অফিসার আলী আহমেদ বলেন, ‘সম্প্রতি কৃষক হানিফ মোল্লাকে সবজি বীজ দেওয়া হয়েছে। তাঁর পেঁপে বাগানটি নিচু হওয়ায় ক্ষতি হয়েছে’।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: