মো.জাকির হোসেনঃ মুক্তিযোদ্ধের অন্যতম সংগঠক, ভাষা সৈনিক সাবেক সংসদ সদস্য শিদলাই আমীর হোসেন জোবেদা ডিগ্রি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা এড. আমীর হোসেন ছিলেন একজন আলোকিত মানুষ। তার শেষ জীবনের সমস্ত চিন্তা ভাবনা ছিল এ কলেজটি নিয়ে। কলেজ প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে জীবনে তাকে অনেক মূল্য দিয়ে হয়েছে। এড. আমীর হেসেন বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া জনপদের কল্যাণে দীর্ঘ দিন কাজ করে গেছেন। ১৯৭২ সালে দেশের ক্লান্তি লগ্নে তিনি ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার প্রত্যন্ত ও অবহেলিত শিদলাই গ্রামে এ কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। গ্রামীন জনপদে শিক্ষার আলো ছড়াতে তিনি নিরলশ ভাবে পরিশ্রম করে গেছেন। তিনি অস্র হাতে শুধু যুদ্ধই করেননি, মুক্তিযোদ্ধাদের কিভাবে যুদ্ধ করতে হবে তার প্রশিক্ষন দিয়েছিলেন। ভাষা আন্দোলনে তিনি যে ভূমিকা রেখেছিলেন জাতি সারা জীবন তাকে গভীর ভাবে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। গতকাল রবিবার সকালে কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার শিদলাই আমীর হোসেন জোবেদা ডিগ্রি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. আমীর হোসেনের ১৪ তম মৃত্যুবাষিকী উপলক্ষে শোক সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।

কলেজ মিলনায়তনে কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রভাষক মোঃ জিয়াউল করিমের সঞ্চালনায় মিলাদ মাহফিল ও দোয়া পরিচালনা করেন আলহাজ্ব মাওলানা শহিদুল্লাহ ফারুকী। কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম এড. আমীর হোসেন মহোদয়ের স্মতিচারন করে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা দুর্ণীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারন সম্পাদক কলেজের গভর্নিং বডির সদস্য শিদলাই গ্রামের কৃতি সন্তান সমাজ সেবক আলহাজ¦ শাহ মোঃ আলমঙ্গীর খান, সোনার বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ শিক্ষানুরাগী আবু ছালেহ মোঃ সেলিম রেজা সৌরভ, শশীদল আলহাজ্ব মুহাম্মদ আবু তাহের কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ পিজিউল আলম, মুক্তিযোদ্ধা বীর বিক্রম সুবেদার আবদুল মান্নান, প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক সৈয়দ আহাম্মদ লাভলু, গভর্নিং বডির সদস্য মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সহকারী অধ্যাপক মোঃ হাবিবুর রহমান, প্রভাষক মোঃ সাইফুল ইসলাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষানুরাগী আবদুল রশীদ, কলেজের সহকারী অধ্যাপক সুভাস চন্দ্র দত্ত, সহ. অধ্যাপক কানু রঞ্জন সরকার, সহ. অধ্যাপক বিনয় ভূষন নাথ, সহ. অধ্যাপক মনোয়ারা খাতুন, প্রভাষক মোঃ জাহিরুল ইসলাম, প্রভাষক মোঃ জাকির হোসেন, প্রভাষক মোঃ আবদুল বাছেত, প্রভাষক নিত্যানন্দ রায়, প্রভাষক আনিছুল হক, প্রভাষক ড. মোঃ গোলাম মোস্তাফা, প্রভাষক নাছিমা আক্তার, প্রভাষক মোঃ কাউছার মোরশেদ, প্রভাষক আমিনা বেগম, প্রভাষক রীনা রানী দেব, প্রভাষক মোঃ সাইফুল ইসলাম, প্রভাষক শিরিন আক্তার, শরীর চর্চা শিক্ষক মোঃ নাজমুল হুদা, প্রদর্শক মোঃ রেজাউল করিমসহ কলেজের শিক্ষক, অভিভাবক, গভর্নিং বডির সদস্য ও শিক্ষার্থীবৃন্দ। অনুষ্ঠান শেষে বিশেষ দোয়া ও তাবারুক বিতরনের পর বাদ যোহর কলেজ মসজিদেও বিশেষ দোয়া ও তাবারুক বিতরন করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: