নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সেবা দিতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের উদ্যোগে এবং আবুল খায়ের গ্রুপের সহযোগিতায় লালমাই উপজেলার বাগমারায় ২০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় দুটি আইসিইউ শয্যা স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া দুটি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা, তিনটি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর, একটি বাইপেপ ভেন্টিলেটর, একটি সিপেপ ভেন্টিলেটর, ১২টি সিলিন্ডার সম্বলিত সেন্ট্রাল অক্সিজেন, ইসিজি ও এক্সরে মেশিন, ১০টি অত্যাধুনিক পেশেন্ট মনিটর, একটি অটোক্ল্যাভ মেশিন, একটি লেরিঙ্গোস্কোপ, দুটি বৈদ্যুতিক সাকার মেশিন ও ১০টি স্পেশাল শয্যা স্থাপন করা হয়েছে।

অপরদিকে, করোনায় আক্রান্ত রোগীদের জন্য হাসপাতালের নিজস্ব উদ্যোগে ১২ শয্যার আইসোলেশনও প্রস্তুত করা হয়েছে।

লালমাই উপজেলার পাশাপাশি অর্থমন্ত্রীর নির্বাচনি আসনের (কুমিল্লা-১০) কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও একই সেবা চালু করা হচ্ছে।

আগামী সপ্তাহের মধ্যেই অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনটি হাসপাতালে একযোগে আইসিইউ-এর এই সেবা উদ্বোধন করবেন বলে জানা গেছে। একই দিনে তিনি সদর দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইনডোর সেবাও উদ্বোধন করবেন।

বাগমারা ২০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের আরএমও আনোয়ার উল্যাহ বলেন, ‘করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সেবা দিতে অর্থমন্ত্রীর উদ্যোগে বাগমারা ২০ শয্যা হাসপাতালে দুটি আইসিইউ শয্যা ও সেন্ট্রাল অক্সিজেন সম্বলিত ১০টি শয্যা স্থাপন করা হয়েছে। শিগগিরই এই সেবা কার্যক্রম উদ্বোধন করা হবে। তবে আইসিইউ সেবা চালু রাখতে হলে হাসপাতালে পর্যাপ্ত জনবল পদায়ন করতে হবে।’

লালমাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মজুমদার বলেন, ‘করোনাকালে লালমাই উপজেলাবাসীর জন্য বাগমারা ২০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে আইসিইউ ও হাই ফ্লো অক্সিজেন সেবার উদ্যোগ নেওয়ায় অর্থমন্ত্রীর কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।’

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম সারওয়ার বলেন, ‘কুমিল্লা-১০ আসনের লালমাই উপজেলার বাগমারা ২০ শয্যা হাসপাতাল, সদর দক্ষিণ ও নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অর্থমন্ত্রীর উদ্যোগে করোনা আক্রান্তদের জন্য আইসিইউ ও হাই ফ্লো অক্সিজেন সেবা চালু করা হচ্ছে। প্রতিটি হাসপাতালে দুটি করে আইসিইউ শয্যা স্থাপন করা হয়েছে। আশা করছি, অর্থমন্ত্রী মহোদয় শিগগিরই একযোগে সব হাসপাতালে এই সেবা উদ্বোধন করবেন।’

২০১৭ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ও বর্তমান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বাগমারা ২০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল উদ্বোধন করেন। তবে দীর্ঘ চার বছর অতিবাহিত হলেও জনবল সংকটের কারণে হাসপাতালটিতে ইনডোর সেবা চালু করা সম্ভব হয়নি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: