কুবি প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর ভর্তি পরিক্ষা শুরু হচ্ছে আগামীকাল থেকে। শুক্রবার ‘এ’ ও ‘বি’ এবং শনিবার ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণসহ কেন্দ্রগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, শুক্রবার সকাল ১০ টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ‘এ’ ইউনিট এবং বিকাল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আর শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো: মজিবুর রহমান মজুমদার জানান, “ভর্তি পরীক্ষার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়সহ ১৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পরীক্ষার কেন্দ্র করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় ব্যতীত বাকি কেন্দ্রগুলো বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন কোটবাড়ি এলাকা ও কুমিল্লা শহরে অবস্থিত। তবে ইংরেজি মাধ্যমে পরীক্ষাদানে আগ্রহী পরীক্ষার্থীগণ অন্য যেই কেন্দ্রেই তার রোল নম্বর থাকুক না কেন, শুধুমাত্র কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহনের সুযোগ পাবেন। প্রতি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় শৃঙ্খলার জন্য ৫জন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়াও পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যপক সদস্য মোতায়ন থাকবে। শৃঙ্খলা রক্ষায় বিশ্ববিদ্যালয় বিএনসিসি প্লাটুন ও রোভার স্কাউটের সদস্যরাও নিয়োজিত থাকবেন।”

এ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরিক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ৫৩ জন শিক্ষার্থী। ৬ টি অনুষদের অধীনে মোট ১ হাজার ৪০টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ৫৪ হাজার ৮০৯ জন শিক্ষার্থী। ‘এ’ ইউনিটে (বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদ) ৭টি বিভাগে মোট ৩৫০টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেন ২৩ হাজার ৬২৫ জন, ‘বি’ ইউনিটে (কলা, সামাজিক বিজ্ঞান ও আইন অনুষদ) ৮টি বিভাগে ৪৫০টি আসনের বিপরীতে ১৯ হাজার ৩৭২ জন ও ‘সি’ ইউনিটে (ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ) ৪টি বিভাগে ২৪০টি আসনের বিপরীতে ১১ হাজার ৮১২ জন শিক্ষার্থী।

ইউনিট ভিত্তিক সময়সূচী, স্থান, আসন বিন্যাস ও সংশ্লিষ্ট তথ্য যথাসময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইট  www.cou.ac.bd ও হেল্পলাইন ০১৫৫৭-৩৩০৩৮১ / ০১৫৫৭-৩৩০৩৮২ তে জানা যাবে।

উল্লেখ্য, গেল বছরের ১৭ ও ১৮ নভেম্বর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও গত ৬ নভেম্বর অনিবার্য কারণ দেখিয়ে স্থগিত করে দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এরপর ২ ডিসেম্বরের থেকে ৫৮ দিন উপাচার্য শূন্য থাকায় ভর্তি পরীক্ষা নেয়া হয়নি। গত ৩১ জানুয়ারী নতুন উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরীর সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভায় স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: