কুবি প্রতিনিধিঃ কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শিক্ষার্থীরা। সোমবার বেলা ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাঁঠালতলায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। এসময় কোটা প্রথা সংস্কারের জন্য পাঁচটি দাবী তুলে ধরা হয়।

এসময় শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্লাকার্ডে ও স্লোগানে স্লোগানে তাঁদের দাবিগুলো তুলে ধরেছেন। প্লাকার্ডগুলোয় লেখা হয়েছে, ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায় কোটা বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘কোটা পদ্ধতির সংস্কার চাই, ১০%-এর বেশি কোটা নয়’, ‘হয় কোটা সংস্কার কর, নইলে বুকে গুলি কর’।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘কোটা ব্যবস্থা সংস্কার করে শতকরা ৫৬ ভাগ থেকে ১০ ভাগ করতে হবে। কোটায় যোগ্য প্রার্থী না থাকলে শূন্য পদগুলোতে মেধা তালিকা থেকে নিয়োগ দিতে হবে। চাকুরীর নিয়োগ পরীক্ষায় কোটা সুবিধা একাধিকবার ব্যবহার বন্ধ করতে হবে। কোটায় কোনো বিশেষ ধরনের নিয়োগ পরীক্ষা নেয়া যাবে না। চাকুরীর ক্ষেত্রে সবার জন্য অভিন্ন কাট মার্কস ও বয়সসীমা করতে হবে।’

মানববন্ধনে বক্তারা আরও বলেন, কোটা পদ্ধতি সংস্কার করা এখন সময়ের দাবী। বিশ্বের কোন দেশে এমন অদ্ভুদ কোটা ব্যবস্থা নেই। স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরেও জাতির মেধাবী সন্তানরা কোটা ব্যবস্থার কারণে চাকুরি পাচ্ছে না। ৫৬ শতাংশ কোটা ব্যবস্থার কারণে অপেক্ষাকৃত কম মেধাবীরা নিয়োগ পেয়ে যাচ্ছে। দেশের স্বার্থে আমাদের দাবীগুলো মানতে হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: