কুমিল্লার বরুড়া পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের শালুকিয়া গ্রামে ইমাম হোসেন সাবু (২২) নামে এক যুবক তার মা মোমেনা খুতুন(৫৫)কে দা দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার(২৯ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬ টায় তার নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোমেনা খাতুন বরুড়া পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের শালুকিয়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী ও ইমাম হোসেন সাবু সিরাজুল ইসলামের ছেলে।

পারিবারিক সূত্র থেকে জানা যায়,বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় ইফতারের পূর্ব মুহুর্তে সবাই যখন ইফতার তৈরিতে ব্যস্ত এমন সময় ইমাম হোসেন সাবু উঠানে অজ্ঞাত কারনে দা নিয়ে দাড়িয়ে থাকতে দেখে তার মা মোমেনা খাতুন এগিয়ে এসে তাকে দা দিতে বলে। এমন সময় হটাৎ অজ্ঞাত কারনে সে দা দিয়ে তার মা মোমেনা খাতুনকে এলোপাতাড়িভাবে কুপানো শুরু করে। এ অবস্থা দেখে পরিবারের অন্যানোরা দৌড়ে এসে স্থানীয়দের সহযোগীতায় তাকে উদ্ধার করে বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে নেওয়ার পরামর্শ দিলে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে নেওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থা আরো অবনতি ঘটলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেওয়া হলে পথেই তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় ঘাতক পুত্র ইমাম হোসেন সাবুকে আটক করে বরুড়া থানা পুলিশ।

নিহতের স্বামী ও ঘাতকের বাবা সিরাজুল ইসলাম বলেন,ইমাম হোসেন সাবু দীর্ঘদিন ধরে মানসিক সমস্যায় ভোগছে।তাকে আমরা অনেক চিকিৎসা করিয়েছি কিন্তু সুস্থ হচ্ছে না।তার হাতে মা খুন হয়েছে। ব্যাপারটা খুবই দুঃখজনক।

এ বিষয়ে বরুড়া পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ মাহফুজুর রহমান বলেন,ইমাম হোসেন সাবু একজন মানসিক রোগী। তার হাতে তার মা খুন হওয়া খুবই দুঃখজনক।

এ বিষয়ে বরুড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) ইকবাল বাহার মজুমদার বলেন,এ ঘটনায় ঘাতক পুত্রকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে।এ বিষয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়েছে।ঘাতক ইমাম হোসেন সাবুকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে”।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: