নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের নিমসার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় বুধবার বিকেলে ১০ ছাত্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল হক। মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ রাতে অভিযান চালিয়ে ৩ ছাত্রকে আটক করেছে।

জানা যায়, ২০১৮ সালের এস.এস.সি পরীক্ষার পূর্বে বিদ্যালয়ের ট্রেস্ট পরীক্ষায় অকৃতকার্য কিছু শিক্ষার্থী বিভিন্ন সময় বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের হুমকী ধমকী দিয়ে আসছিল। বিষয়টি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটিসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিদের অবহিত করেন প্রধান শিক্ষক। গত ১৯ মার্চ সোমবার সকালে বিদ্যালয়ের মেয়েদের ক্লাসরুম পরিবর্তনের ঘটনাটিকে পুজি করে ওই ছাত্ররা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আমির হোসেনকে মারধর করে ওই ছাত্ররা। এসময় ছাত্ররা বিদ্যালয়ের বিভিন্ন আসবাপপত্র, মালামাল ভাংচুর করে। এ ঘটনার পরদিন মঙ্গলবার সকালে ওই ছাত্ররা বহিরাগত ২০/২৫জন লোক নিয়ে বিদ্যালয়ে প্রবেশ করে প্রধান শিক্ষক আবদুল হককে মারধর করে। এতেও ক্ষান্ত হয়নি ছাত্ররা বুধবার বিকেল ৪ টায় বিদ্যালয় ছুটির ৫ মিনিট পর দশম শ্রেণির ক্লাস রুমে বিস্ফোরন ঘটনায় ছাত্ররা। পরে পুলিশকে খবর দিলে বুড়িচং থানার অফিসার ইনচার্জ মনোজ কুমার দে সহ দেবপুর ফাঁড়ী পুলিশ বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়।

এসকল ঘটনায় দায়ী ছাত্রদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল হক বুধবার বিকেলে বুড়িচং থানায় ১০ ছাত্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। মামলার আসামীরা হলো- মোঃ হালিম(১৬), মোঃ শাহিন(১৫), জোবায়ের হোসেন(১৫), জিহাদ হোসেন (১৬), আকাশ চন্দ্র দাস (১৫), মোঃ ফরহাদ হোসেন (১৬), মাসুম হাসান (১৫), কাজী ইমাম (১৬), মেহেদী হাসান সাগর(১৫), মোস্তাক আহাম্মদ (১৬)। মামলার প্রেক্ষিতে বুধবার রাতে বুড়িচং থানাধীন দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীর এস আই শাহাদাত হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ অভিযান চালিয়ে মামলার আসামী মোঃ শাহিন, মোঃ মোস্তাক ও মোঃ মাসুমকে আটক করে। পুলিশ আটককৃত আসামীদের গতকাল কুমিল্লা বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করেছেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: