কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সমেশপুর গ্রামের কলেজ ছাত্র কামরুল হাসান (১৮) পরিবারের কাছে মোটরসাইকেল চেয়ে না পাওয়ায় অভিমানে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া গেছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে এই ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সুত্র জানায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের সমেশপুর গ্রামের আবুল কাশেমের পুত্র ময়নামতি স্কুল এন্ড কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র কামরুল হাসান সম্প্রতি তার পিতার কাছে মোটরসাইকেলের বায়না ধরে। পিতা তার সেই বায়না পূরণ না করায় অভিমানে গতকাল শুক্রবার দুপুর আনুমানিক ২ টায় পরিবারের লোকজনের অজান্তে নিজ কক্ষের ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। এসময় পরিবারের লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত ময়নামতি সেনানিবাস এলাকায় ময়নামতি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। পরে পরিবারের লোকজন তার মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসে।

এদিকে খবর পেয়ে বুড়িচং এর দেবপুর ফাঁড়ির এস আই রাজিব চৌধুরীর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল খবর পেয়ে বিকেলে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: