কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত ও অপর ৭ জন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন; ট্রাক হেলপার ফারুক হোসেন(২৭),মোটর সাইকেল আরোহী চৌদ্দগ্রামের উনকোট গ্রামের রফিক মিয়ার ছেলে পেয়ার আহম্মেদ(৩৫) ও লরী চালক রাসেল(৩৮)। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের আটগ্রাম রাস্তার মাথায় মঙ্গলবার বেলা পৌনে এগারটায় এ ঘটনা ঘটে। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ আসাদুজ্জামান।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের আটগ্রাম পুরাতন রাস্তার মাথায় মঙ্গলবার বেলা পৌনে এগারটায় একটি ট্রাক(ফেনী-ট-১১-০০৪৬) দাঁড়িয়ে ছিল। মুহুর্তের মধ্যে ঢাকামুখী একটি লরীকে(ঢাকামেট্রো-ঢ-৬২-০০১৬) ধাক্কা দেয়। এ সময় পূর্ব দিক থেকে আসা মোটর সাইকেলের সাথে সংঘর্ষ ঘটে। এক পর্যায়ে লরী সড়কের পাশে থাকা দোকানে ঢুকে যায়। এতে ঘটনাস্থলে ৩ জন নিহত হন।

এ সময় আহত হন আরও ৮ জন। খবর পেয়ে মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি ও চৌদ্দগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদেরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জরুরী বিভাগের সূত্রমতে আহতরা হলেন; চৌগ্রাম উপজেলার আটগ্রামের মতৃ.বাঁচা মিয়ার ছেলে রাজ্জাক মিয়া,চট্টগ্রাম মিরেরশরাই উপজেলার করেরহাটের আজিম মিয়ার ছেলে আলমগীর হোসেন, মিরেরশরাই উপজেলার করেরহাটের ইলিয়াছ হোসেরন ছেলে রাজিব,গাইবান্ধ জেলার সৈয়দ আলম মামুন,চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আটগ্রামের আনু মিয়ার ছেলে জামান,স্থানীয় রাজন,রেদোয়ান,মামুন ।

এ ব্যাপারে মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন,‘দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহত ও দুর্ঘটনা কবলিত গাড়িগুলো উদ্ধার শেষে ফাঁড়িতে নেয়া হয়েছে। আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে’।

এই বিষয় চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভরঞ্জন চাকমা বলেন,আমার খবর পেয়ে ফারার সার্ভিসের সহযোগিতার স্থানীয়দের আহতদের উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেসে পাঠানো হয়। পরে গুরুত্ব আহতদের আমরা কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় । লাশ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: