কুমিল্লার লাকসাম উপজেলায় সন্তানদের স্কুলশিক্ষকের সঙ্গে উধাও হয়েছেন এক প্রবাসীর স্ত্রী। গেলো ১০ জানুয়ারি ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মুদাফরগঞ্জ (দ.) ইউনিয়ন লক্ষ্মীপুর গ্রামে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষক বিল্লাল হোসেন একই ইউনিয়নে জন্দর্নপুর গ্রামের ইসমাইল মিয়ার ছেলে।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সকালে মুদাফরগঞ্জ (দ.) ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল রশিদ সওদাগর গণমাধ্যমকে বলেন, প্রবাসী মিলনের স্ত্রী দুই ছেলেমেয়ে নিয়ে ‘শতদল শিশু নিকেতন’ স্কুলের সহকারী শিক্ষক বিল্লাল হোসেনের সঙ্গে নিরুদ্দেশ হওয়ার ঘটনা শুনেছি। তবে ওই গৃহবধূ ডিভোর্স লেটার দিয়েছে এটিও জানি। তবে সেটি হাতে আসেনি।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার মুদাফরগঞ্জ (দ.) ইউনিয়নে চিতোষী বাজারে ‘শতদল শিশু নিকেতন’ স্কুলের শিক্ষার্থী লক্ষ্মীপুর গ্রামে চেয়ারম্যানবাড়ীর প্রবাসী মিলনের দুই সন্তান। ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দুই সন্তান নিয়ে আসা যাওয়ার সময় স্কুলের সহকারী শিক্ষক বিল্লালের সঙ্গে পরিচয় হয় প্রবাসীর স্ত্রীর। এরপর দুজন প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। গেলো ১০ জানুয়ারি ওই প্রবাসীর স্ত্রী স্বামীর আলিশান বাড়িঘর ও কোটি টাকার সম্পত্তি রেখে দুই সন্তান নিয়ে শিক্ষক বিল্লাল হোসেনের সঙ্গে নিরুদ্দেশ হন। খোঁজ না পেয়ে তাদের স্বজনদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর অভিযুক্ত শিক্ষক বিল্লাল হোসেন ও প্রবাসী স্ত্রীর মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে বলে জানান স্বজনরা।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে অভিযুক্ত বিল্লালের ছোট ভাই জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমার ভাই গেলো চার দিন ধরে নিখোঁজ ও তার মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে। কোথায় আছে আমরা জানি না।

প্রবাসী মিলনের কাকা মোতাহের হোসেন বলেন, মিলন প্রবাসে যাওয়ার পর তার বাড়িতে থাকতেন স্ত্রী ও দুই সন্তান। তার মা ঢাকায় বোনের বাসায় থাকেন। এলাকায় শুনেছি, গেলো কয়েক দিন আগে নাকি বিল্লালের সঙ্গে তার স্ত্রী ও সন্তান উধাও হয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: