কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার ঐতিহ্যবাহী নিমসার জুনাব আলী কলেজের গভর্নিং বডির সভায় অধ্যক্ষ মামুন মিয়া মজুমদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে কথা বলার সময় গভর্নিং বডির এক সদস্য এক অভিভাবক সদস্যের উপর চড়াও হয়ে অশ্লিল গালমন্দ,হামলাসহ মামলার ভয় দেখালে সভা থেকে ৪ জন সদস্য বেরিয়ে আসেন। পরে অভিভাবকসহ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী কলেজ কাম্পাসসহ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বিক্ষোভ মিছিল করে। গতকাল শনিবার দুপুরে এঘটনাটি ঘটে।

কলেজের গভর্নিং বডি ও অভিভাবক সদস্যরে কাছ থেকে জানা যায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে ঐতিহ্যবাহী নিমসার জুনাব আলী কলেজের অধ্যক্ষ মামুন মিয়া মজুমদারের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলা,গভর্নিং বডির সভায় অর্থ লেনদেনের ক্ষেত্রে সভাপতি ও অধ্যক্ষের যৌথ স্বাক্ষর, ইংরেজি বিষয়ের খন্ডকালীন প্রভাষক আবুল হাসান ও এম এল এস এস মোক্তার হোসেন এর কলেজ প্রদেয় ভাতা, স্নাতক (সম্মান) শ্রেনীর ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক আমজাদ হোসেনের কলেজ প্রদেয় ভাতা নির্ধারন নিয়ে সিদ্ধান্তসমুহ বাস্তবায়ন না করা, কলেজের আর্থিক অনিয়ম ও গভর্নিং বডির সদস্যসহ বিভিন্ন ব্যক্তির সাথে অশালিন আচরনের অভিযোগ রয়েছে। বিগত ২০১৯ সালের ২০ ফেব্রুয়ারী সর্বশেষ সাধারন সভায় গভর্নিং বডির কিছু সদস্য লিভিতভাবে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটিও গঠন করা হয়েছিল। উক্ত কমিটি একই বছরের ১২ অক্টোবর সাধারন সভায় তদন্ত প্রতিবেদন ও আনুষাঙ্গিক কাগজপত্র ও সাক্ষীগণের জবানবন্দীসহ পেশ করেন। এতে অধ্যক্ষেরও বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের প্রমান পাওয়া যায়।

এঅবস্থায় ১২ অক্টোবরের সাধারন সভায় কলেজ গভর্নিং বডির সিদ্ধান্তে প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি কুমিল্লা (বুড়িচং-ব্রাহ্মনপাড়া)-৫ সংসদীয় আসনের এমপি সাবেক আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু স্বাক্ষরিত অধ্যক্ষকে কারণ দর্শাও নোটিশ দেওয়া হয়।

শনিবার ছিল আবারো নিমসার জুনাব আলী কলেজের গভর্নিং বডির সাধারন সভা। দুপুর পৌনে ১ টায় বুড়িচং উপজেলার নির্বাহী অফিসার ইমরুল হাসানের সভাপতিত্বে সভা চলাকালে অভিভাবক সদস্য আনিসুর রহমান অধ্যক্ষ মামুন মিয়া মজুমদারের বিরুদ্ধে বিগত সময়ে আনিত অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে গভর্নিং বডির সদস্য বুড়িচং সাবেক উপজেলা চেয়াম্যান, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারন সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন স্বপন উত্তেজিত হয়ে অধ্যক্ষ্যের পক্ষাবলম্বন করে আনিসুর রহমানের বিরুদ্ধে অশালীন কথাসহ তাকে হামলা, মামলার ভয় দেখান। এসময় অনিসসহ গভর্নিং বডির সদস্য অ্যাডভোকেট মোবারক হোসেন, তাজুল ইসলাম, গোলাম মোস্তফা সভা থেকে বেরিয়ে আসেন। পরে অভিভাবক, কলেজের শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় লোকজন কলেজ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি এসময় কলেজ সংলগ্ন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নিমসার এলাকা প্রদক্ষিণ করে।

অধ্যক্ষ মামুন মিয়া মজুমদার বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা। যে সভা হয়েছে সেখানে আনিস নামের এক সদস্য কিছুটা ভূল করেছিল। সাজ্জাদ সাহেব তাকে বুঝিয়ে সমাধানের চেষ্টা করেছেন।

বিষয়টি জানতে চাইলে বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইমরুল হাসান জানান, সভাপতি হিসেবে এটা আমার প্রথম পরিচিতি সভা। কোন সমস্যা নিয়ে কথা বলার সুযোগ ছিল না। যেহেতু এমপি মহোদয় শোকজ করেছেন, অধ্যক্ষ উনার কাছেই জবাব দিবেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: