চলমান পরিবহণ ধর্মঘটে ভিক্টোরিয়া কলেজ শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের সকল বাস বন্ধ থাকবে। কলেজ প্রশাসন জানিয়েছে পূর্ব ঘোষিত বিভিন্ন বিভাগের ইনকোর্স ও নির্বাচনী পরীক্ষা চলবে। উচ্চমাধ্যমিক শাখাসহ ডিগ্রি, অনার্স ও মাষ্টার্সের শ্রেণি কার্যক্রম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রুটিনে চলমান রয়েছে। কলেজ বাস ও গণপরিবহণ বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পরেছেন ভিক্টোরিয়ার হাজার হাজার শিক্ষার্থী।

সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম সোহাগ জানান, ফেনীতে চাকরি করি। ইনকোর্স পরীক্ষা আছে তাই ৮০ টাকার ভাড়া ৩০০ টাকা দিয়ে মাইক্রো বাসে কলেজে এসেছি।

অর্থনীতি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী আখি নূর হাবিবা বলেন, আগামী সাপ্তাহে ফাইনাল পরীক্ষা। প্রবেশপত্র নেওয়ার জন্য এসেছি, কলেজ বাস বন্ধ থাকায় সিএনজিতে বেশী ভাড়া দিয়ে আসতে হয়েছে।

কলেজের বাংলা বিভাগ দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রোজিনা আক্তার রোজি বলেন, একদিনে কলেজে ক্লাস চলবে, আবার কলেজ বাস বন্ধ থাকলে আমাদের ভোগন্তি হয়। বিকল্প পরিবহণ হিসাবে সিএনজি বা মাইক্রো বাসে যেতে হবে তখন নির্ধারিত ভাড়া থেকে অতিরিক্ত ভাড়ায় কলেজে যেতে হয়।

এ বিষয়ে কলেজ পরিবহণ কমিটির আহ্বায়ক, ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আবদুর রউফ বলেন, বাস চালকদের সাথে যোগাযোগ করেছি। তারা জানিয়েছে কলেজ শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিভিন্ন উপজেলায় যে সকল বাস যাতায়াত করে তা বাস-মালিকদের সংগঠনের আওতায় রয়েছে। যদি মালিকরা না দেন তাহলে বাস নিয়ে বের হওয়া যাবে না। কলেজের মালিকানাধীন একমাত্র বড় বাসটি মেরামতের জন্য গ্যারেজে পাঠানো হয়েছে। চৌদ্দগ্রাম সড়কেও বাস বন্ধ থাকবে।

কলেজ পরিবহণ কমিটির সদস্য রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রাজু আহাম্মদ জানান, রবিবার পরিবহণ কমিটির সভা আছে। সভায় পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। বর্তমানে ৮টি সড়কে কলেজ বাস চলাচল করে। শিক্ষার্থী সংখ্যা বাড়লে বাস ১০-১৩টা পর্যন্ত ভাড়া নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে ভিক্টোরিয়া কলেজ শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহজাহান বলেন, যেহেতু গণপরিবহণ বন্ধ। সড়কে বাস চলাচলে কিছুটা ঝুঁকি রয়েছে। এ বিষয়ে পরিবহণ কমিটির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন। তবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বশেষ রুটিন অনুযায়ী শ্রেণি কার্যক্রম চলবে। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী কলেজের বিভিন্ন বিভাগের পরীক্ষা সমূহ চালু রয়েছে। প্রশাসনিক কার্যক্রম স্বাভাবিক গতিতে চলছে।

প্রসঙ্গত, বর্ধিত তেলের দামের সাথে বাস ভাড়া সমন্বয় না করায় লোকসানের আশংকায় কুমিল্লা থেকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য ১৫টি রোডে বাস চলাচল শুক্রবার থেকে বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে কুমিল্লা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের নেতৃবৃন্দ। বৃহস্পতিবার (০৪ নভেম্বর ২০২১) সন্ধ্যায় হঠাৎ কুমিল্লার নগরীর জেলা কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এক ঘোষণা দেন সংগঠনের সভাপতি অধ্যক্ষ কবির আহমেদ। এছাড়াও সারাদেশে গণপরিবহণ বন্ধ থাকার খবর পাওয়া গেছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: