ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার সদরে মোবারক হোসেন নামে অবসরপ্রাপ্ত এক সেনা সদস্যকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে জেলার কালিরবাজার ইউনিয়নের ধনুয়াখলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোবারক ওই গ্রামের মৃত আবদুল জলিলের ছেলে। ময়নামতি ক্যান্টনমেন্ট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও পুলিশ পরিদর্শক মাহমুদুল হাসান রুবেল হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সেনাবাহিনী থেকে অবসরে আসার পর মোবারক হোসেন ট্রাভেলস ব্যবসার মাধ্যমে বিদেশে লোক পাঠাতেন। বিভিন্ন কারণে স্থানীয় কিছু লোকের সঙ্গে তার বিরোধ চলছিল।

শুক্রবার রাত দুইটার দিকে বাসার বাহির থেকে দুর্বৃত্তরা তাকে ডাকতে থাকে। দরজা খুলে বারান্দায় আসার সঙ্গে সঙ্গে সঙ্গে দুর্বৃত্তরা মোবারককে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি করে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মোবারককে মৃত ঘোষণা করেন।

ময়নামতি ক্যান্টনমেন্ট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও পুলিশ পরিদর্শক মাহমুদুল হাসান রুবেল জানান, দুর্বৃত্তদের চিনে ফেলায় তারা সাবেক ওই সেনা সদস্যকে গুলি করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে যায়। হত্যাকাণ্ডের মোটিভ এখনো জানা যায়নি। ময়নাতদন্ত করতে নিহতের মরদেহ শনিবার সকালে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: