দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ চোর-ডাকাতরা হয় জেলে থাকবে নয় নিজেকে সংশোধন করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে হবে। এই ললিতাসার গ্রামে একটি ডাকাতির ঘটনায় অল্প সময়ের মধ্যে সাম্প্রতিক সময়ে ১৬ জন ডাকাতকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। যার ফলে এই ললিতাসার গ্রামের অনেক লোক আমাকে ফোন করে বলেন আমরা এখন আমাদের দরজার খিলি না দিয়েও রাতে ঘুমাতে পারি। এখন আর কোন চোর-ডাকাতের আতংক নেই। তবে আপনারা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে সবার সাথে যোগাযোগ রাখবেন, রাতের বেলা যদি কোন বাড়িতে চোর ডাকাত প্রবেশ করে শুধু আপনার মোবাইল দিয়ে ওসির নাম্বারে একটি ফোন দিবেন। আমাদের টিম দ্রুততার সাথে ঘটনাস্থলে পৌছে গিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে। তবে আমার নিকট জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে বেশ কয়েকজন ডাকাত প্রস্তাব পাঠিয়েছে ওরা আর ডাকাতি করবেনা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসবে। তবে এখনই আমরা তাদের সে সুযোগ না দিয়ে তাদেরকে নজদারীতে রেখেছি।
তিনি অরো বলেন- আমি দেবিদ্বার থানায় যোগদানের পর এই থানাকে মাদক মুক্ত করতে অনেক মাদক ব্যবসায়ী ও সেবণ কারীদের আটক করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ায় প্রায় ২৫ জন মাদক ব্যবসায়ী এই ব্যবসা ছেড়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসায় বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সাবাইকে সম্মাননা প্রদান ও প্রায় ১৫/১৬ জন মাদক ব্যবসায়ীকে পুনর্বাসনেও সহযোগীতা করা হয়েছে। বর্তমান সময়ে মাদকের ছোবলে হাজারো যুবক আজ মাদকাসক্ত। তাই এই যুব সমাজ তথা আপনাদের সন্তনদের মাদকের ছোবল থেকে রক্ষা করতে হলে প্রত্যেক পরিবারকে মাদক প্রতিরোধে সতর্ক থাকতে হবে। তবে মাদকাসক্ত ছেলেরা সমাজের বোঝা নয় তাদেরকে চিকিৎসা করলে এরা একদিন দেশের সম্পদ হতে পারে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে দেবিদ্বার থানার মোহনপুর ইউনিয়নের ললিতাসার গ্রামের পশ্চিম শিংহ বাড়ির পুজামন্ডপ কর্তৃক আয়োজিত এক সভা প্রধান অতিথি হিসেবে দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ মিজানুর রহমান এই বক্তব্য তুলে ধরেন।
দেবিদ্বার ললিতাসার গ্রামকে ডাকাত মুক্ত করায় প্রধান অতিথি ওসি মোঃ মিজানুর রহমান কে লতিলাসার গ্রামের হিন্দুসম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে সম্মাননা স্বরুপ উত্তরীয় পরিয়ে দেন বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোটের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কালিপদ মজুমদার। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ তাজুল ইসলাম, বাংলাদেশ পূঁজা উদযাপন পরিষদ দেবিদ্বার শাখার আহবায়ক মো. রবীন্দ্র চন্দ্র পাল, সদস্য সচিব বাবু মানিক চক্রবর্তী, দেবিদ্বার প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মোঃ ফখরুল ইসলাম সাগর, সাংবাদিক সুমন আহাম্মেদ সহ স্থানীয় ব্যাক্তি বর্গ।
উল্লেখ্য দেবিদ্বার থানা পুলিশের কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সনাতন হিন্দু ধর্ম্মালম্বীদের সর্ববৃহৎ শারদীয় দুর্গো উৎসব সুষ্ঠু, সুন্দর ও উৎসব মুখর পরিবেশে পূঁজা চলছে। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মিজানুর রহমান সহ থানার সকল অফিসারগন ৮৫টি পূজা মন্ডপে গিয়ে সার্বিক খোঁজ খবরও নিচ্ছেন এবং সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালন করতে নিরাপত্তা কর্মীদের দিক নির্দেশনা ও পরামর্শ দিচ্ছেন। তবে এই পর্যন্ত পূজামন্ডবে কোন অপ্রীতিকর ঘটনার সংবাদ পাওয়া যায়নি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: