দেবীদ্বারে পারিবারিক কলহে যুবকের আত্মহত্যা

কুমিল্লার দেবীদ্বারে পারিবারিক কলহের জের ধরে মোঃ আবুল কালাম আজাদ (৪০) নামে চার সন্তানের জনক বিষ পানে আত্মহত্যা করেছেন।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় দেবীদ্বার পৌর এলাকার বারেরা (চাঁন গাজি বাড়ি) গ্রামে পরিবারের সবার অজান্তে দেওয়ালে জীবনের শেষ কথা লিখে তিনি ক্যারির ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেন।

দেয়ালের শেষ লেখাটি ছিল মায়ের দেওয়া সম্পত্তি আমার রক্তে রইল না সেটি চলেছে অন্য রক্তে, আমার বালিশের নিচে ৯ হাজার ৩৮৭ টাকা আছে।

নিহত মোঃ আবুল কালাম আজাদ দেবীদ্বার উপজেলার বাড়েরা চানঁ গাজী বাড়ির বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানায়, টাকা-সম্পত্তি স্ত্রীর নামে লিখে দিতে হয়েছে। তবে স্ত্রীর পরকিয়ার সর্ম্পক নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর দীর্ঘদিন যাবত দ্বন্ধ ছিল। সামাজিকভাবে কয়েকবার সমাধানের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে। সোমবার রাতে নিজ গৃহে বিষ পানে আত্মহত্যার পর মঙ্গলবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করেন থানা পুলিশ। তার ২টি ছেলে ও ২টি মেয়ে আছে বলে জানা যায়।

এই বিষয়ে স্ত্রী জোৎসনা বেগম জানান, আমার স্বামী আবু কালাম গাজীপুরে থাকে। আমার সাথে অনেক দিন ধরে কথা বলে না। যখন বাড়িতে আসে তখনও আমার সাথে কথা বলে না। সোমবার রাতে কখন ঘরে এসে ঘুমিয়েছে তাও আমি জানিনা। মঙ্গলবার সকালে রুম বন্ধ দেখে আমার ছোট মেয়েকে দিয়ে ডাক দিলে কোন সাড়া শব্দ পাইনি। পরে আমার শোর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে ঘরের ছিলিং ভেঙ্গে রুমে ঢুকে তাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়।

দেবীদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহির আনোয়ার জানান, আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠিয়েছি। সেখান থেকে সুরতহাল তৈরি করে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। রিপোর্ট হাতে আসলে বিস্তারিত জানা যাবে।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

ফেসবুকে আমরাঃ