দেশের করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় সশরীরে চলমান সকল পরীক্ষা স্থগিত করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল। মাঝপথে এসে পরীক্ষা বন্ধের ঘোষণায় বিপাকে পড়া শিক্ষার্থীদের বাড়ি ফেরা সহজ করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বাসে বিভাগীয় শহর পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ৩০ জুনের পর থেকে একই পথে হাঁটার ঘোষণা দিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।

গত ১৩ জুন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে পরীক্ষা নেওয়া শুরু হয়েছিল। কিন্তু করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সব পরীক্ষা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয় অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল। এরপরই আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের বিভাগীয় শহরে পৌঁছে দিতে করা হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসের ব্যবস্থা।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর কাজী মো. কামাল উদ্দিন বলেন, অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলে পরীক্ষা বন্ধের সিদ্ধান্ত আসার পর আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বাসগুলোর মাধ্যমে তাদের বিভাগীয় শহরগুলোতে পৌঁছে দিচ্ছি। দেশের সব বিভাগে আমাদের সক্ষমতা অনুযায়ী আমরা গাড়ি পাঠাচ্ছি।

একই সিদ্ধান্ত নিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। ৩০ জুনের পর শিক্ষার্থীদের কয়েক ধাপে বাড়ি পৌঁছে দেয়ার কথা জানিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: