ব্রাহ্মনপাড়ায় ঋনের টাকা দিতে না পেরে পিতার আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লার ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলার চান্দলা ইউনিয়নের ছোটধুশিয়া গ্রামে ৪ সন্তানের জনক ঋনের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় গতকাল ১৭ অক্টোবর বিকালে বাড়ীর পাশের একটি মাছের ফিসারির গাছে ঢালার সাথে গলায় ফাসি দিয়ে আত্মহত্যা করে। এলাকাবাসী নিহতের লাশ দেখতে পেয়ে ব্রাহ্মনপাড়া থানা পুলিশকে খবর দিলে ব্রাহ্মনপাড়া থানা পুলিশ একই দিনে তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করে। ব্রাহ্মনপাড়া থানার এস আই বিকাশ মন্ডল ও এলাকাবাসী জানান ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলার চান্দলা ইউনিয়নের ছোটধুশিয়া গ্রামের কনু মিয়ার ছেলে ৪ সন্তানের জনক ফারুক (৩৮) গ্রামীন ব্যাংক থেকে টাকা উত্তলন করে কয়েক মাস পূর্বে ঘটনার দিন গ্রামীন ব্যাংকের লোকজন তার নিকট কিস্তির টাকার জন্য আসলে টাকা না দিতে পেরে বিকালে বাড়ীর সকলের অজান্তে বাড়ীর পাশের মৃত নুরুল হকের মাছের ফিসারির পাড়ের গাছের ঢালার সাথে গলায় ফাসি দিয়ে আত্মহত্যা করে । গাছের ঢালার সাথে তার লাশ ঝুলতে দেখে এলাকাবাসী ব্রাহ্মনপাড়া থানা পুলিশকে কবর দিলে ব্রাহ্মনপাড়া থানার এস আই বিকাশ মন্ডল ঘটনার স্থলে গিয়ে নিহতের লাশ ঝুলন্ত অবস্থা থেকে উদ্ধার করে শোরত হাল রির্পোট তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্য ফারুকের লাশ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাপতালের মর্গে প্রেরন করে। এই ব্যাপারে নিহতের স্ত্রী ফারজানা আক্তার বাদী হয়ে ব্রাহ্মনপাড়া থানায় একটি অপমুত্যুর মামলা করে। মামলা নাম্বার ২৩ তারিখ ১৭/১০/১৭ ইং। এ ব্যাপারে ব্রাহ্মনপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আবু মোঃ শাহজাহান কবির ঘটনার সততা স্বীকার করে জানান নিহত ফারুকের ৩ ছেলে ১ মেয়ে রয়েছে। সে গ্রামীন ব্যাংকের ঋনের টাকা পরিশোধ না করতে পারায় আত্মহত্যা করেছে। নিহত ফারুকের স্ত্রী ফারজানা আক্তার জানান আমার স্বামী ফারুক স্থানীয় গ্রামীন ব্যাংক থেকে ঋন উঠানোর পর সময় মত কিস্তির টাকা পরিশোধ না করার কারনে ব্যাংকের লোক জন বাড়ীতে এসে টাকার জন্য বিভিন্ন অসামাজিক কথা বলার কারনে সে গলায় ফাসি দিয়ে আত্মহত্যা করে। তিনি আরো বলেন আমার ৩ ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে এর মধ্যে একটি নবজাতক শিশু রয়েছে আমি তাদেরকে নিয়ে এখন কি করব।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

ফেসবুকে আমরাঃ