জন্ম থেকেই দুই পা অচল, চলাচল করতে হয় হুইল চেয়ারে। তবে এই প্রতিবন্ধকতা দমিয়ে রাখতে পারেনি শাহানাজ আক্তারকে। মেধার পাশাপাশি অদম্য ইচ্ছে শক্তি ও চেষ্টায় অব্যাহত রেখেছেন পড়াশোনা। স্বপ্ন দেখেন ভবিষ্যতে শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত ও শারীরিকভাবে অক্ষম মানুষের কল্যাণে তিনি কাজ করবেন।

শাহনাজ আক্তার কুমিল্লার লালমাই উপজেলার বাসিন্দা। রোববার কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে গুচ্ছ পদ্ধতির ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন তিনি। পরীক্ষা শেষে দায়িত্বরত স্কাউট সদস্যদের সহায়তায় অটোরিকশায় উঠে বাড়ি ফেরেন শাহানাজ।

মেধাবী শাহানাজ আক্তারের মানূরজাহান বেগম বলেন, জন্ম থেকেই ভিটামিনের অভাবে শাহানাজের দু’পা অবশ। মেধা অনেক ভালো হওয়ায় সে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার ধাপ পর্যন্ত আসতে পেরেছে।

শাহানাজ বলেন, আমার এতদূর আসার পিছনে মায়ের অনুপ্রেরণা সবচেয়ে বেশি। যারা শিক্ষাবঞ্চিত এবং শারীরিকভাবে অক্ষম তাদের নিয়ে আমি ভবিষ্যতে কাজ করতে চাই।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: