আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি ঈদুল আযহার। প্রতি বছর ঈদের এই সময়ে প্রচণ্ড যানজট দেখা যায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে। কিন্তু এবারের চিত্র সম্পূর্ণ ভিন্ন। মহাসড়কের কুমিল্লা অংশের ১০২ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে কোথাও যানজটের খবর পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

কুমিল্লা জেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি থেকে শুরু করে চৌদ্দগ্রাম পর্যন্ত এই ১শ’ দুই কিলোমিটার এলাকায় প্রতি বছর ঈদকে সামনে রেখে দাউদকান্দি, চান্দিনা, নিমসার, কুমিল্লা সেনানিবাস, আলেখার চর বিশ্বরোড, পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড এবং চৌদ্দগ্রামসহ বেশকিছু পয়েন্টে দীর্ঘ যানজট লেগেই থাকে। বিশেষ করে কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকা হয়ে আলেখারচর পর্যন্ত দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হতে দেখা যায়।

তবে, প্রতি বছরের তুলনায় এবারের চিত্রটা সম্পূর্ণ ভিন্ন। মহাসড়কের কুমিল্লা অংশের দাউদকান্দি থেকে চৌদ্দগ্রাম পর্যন্ত কোথাও যানজটের খবর পাওয়া যায়নি। কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকা থেকে শুরু করে আলেখারচর হয়ে পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড পর্যন্ত এই এলাকাটিতে যানবাহন একেবারেই স্বাভাবিক গতিতে চলাচল করছে।

এদিকে, মহাসড়কে যাত্রীবাহী যানবাহনের সংখ্যা খুবই কম। মহাসড়কে যেসব যানবাহন চলাচল করছে এরমধ্যে অধিকাংশই পণ্যবাহী।

ময়নামতি হাইওয়ে থানার ওসি শাফায়েত হোসেন জানান, মহাসড়কের কুমিল্লা অংশে হাইওয়ে পুলিশের কুমিল্লার রিজিওনের ১২টি টিম কাজ করছে। তারা যানজট নিরসনে এবং মহাসড়কে নিরাপত্তা বিধানে তৎপর রয়েছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: