কুমিল্লার চান্দিনা পৌরসভা নির্বাচনে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে প্রায় তিন গুণ বেশি ভোটে জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী।

শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বেসরকারিভাবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শওকত হোসেন ভূঁইয়াকে জয়ী ঘোষণা করা হয়। চান্দিনা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার ও সিনিয়র জেলা নির্বাচনি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন।

নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে শওকত হোসেন ভূঁইয়া পেয়েছেন ৯ হাজার ৪৫১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম হোসেন জগ প্রতীকে পান তিন হাজার ১৫৫ ভোট।

এ ছাড়া বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী শাহ্ মো. আলমগীর খান ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন দুই হাজার ৬৯৫ ভোট। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী কাজী রেজাউল করিম হাতপাখা প্রতীকে ৯৪৪ এবং এলডিপির প্রার্থী জামশেদ আহম্মদ জাকি ছাতা প্রতীকে পান ১৮৯ ভোট।

এদিকে ভোটের ফল ঘোষণার পর ইভিএমে কারচুপির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম হোসেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন, ‘ইভিএমে স্থুল কারচুপি হয়েছে। এ কারণে তিনি পরাজিত হয়েছেন।’

এর আগে শনিবার সকাল ৮টায় চান্দিনা পৌরসভার ৯ ওয়ার্ডের ১৫ কেন্দ্রে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট গ্রহণ শুরু হয়। ৩১ হাজার ৮৪৮ ভোটারের মধ্যে ভোট দেন ১৬ হাজার ৪৩৪ জন। সেই হিসাবে ভোট পড়েছে ৫১.৭৯ শতাংশ।

এ পৌরসভায় সাধারণ কাউন্সিলর পদে আকতার আহমেদ নাদিম (১ নম্বর ওয়ার্ড), আবু কাউসার (২ নম্বর ওয়ার্ড), নাজমুল হাসান (৩ নম্বর ওয়ার্ড), কামাল হোসেন (৪ নম্বর ওয়ার্ড), কাজী তোফায়েল আহমেদ জনি (৫ নম্বর ওয়ার্ড), নজরুল ইসলাম (৬ নম্বর ওয়ার্ড), আব্দুস ছালাম (৭ নম্বর ওয়ার্ড), আব্দুর রব (৮ নম্বর ওয়ার্ড), দুলাল মিয়া (৯ নম্বর ওয়ার্ড) জয় পেয়েছেন।

সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১ নম্বর ওয়ার্ডে মোর্সেদা আক্তার, ২ নম্বর ওয়ার্ডে আমেনা আক্তার এবং ৩ নম্বর ওয়ার্ডে জয় পান শাহানাজ পারভীন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: