৩টি মেশিন নিয়ে যাত্রা শুরু করে আজ ৫শ’ লোকের কর্মসংস্থান যুগিয়েছেন। তাদের মধ্যে ২শ’ পুরুষ ও ৩শ’ নারী। মেশিনের ঝকঝক শব্দ তাদের কাজের উৎসাহ যোগিয়েছেন। সেই উৎসাহ থেকেই ক্ষুদ্র পরিসরে যাত্রা করা কারখানাটি এখন লিমিটেডে পরিনত হয়েছে। তাদের পন্য যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের ৭টি দেশে। আর সে চিত্র খুব কাছ থেকে অবলোকন করতে শনিবার বিকেলে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা সদরে ছুটে আসেন এফবিসিসিআই’র সাবেক দু’বারের সভাপতি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন এমপি, বানিজ্য মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব একেএম আলী আহাদ খান, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. রুহুল আমিনসহ অনেক উদ্যোক্তারা।

এব্যাপারে নাবিলা রহমান ক্যাপ ইন্টার ন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেড এর উদ্যোক্তা ইয়াকুব আলী বলেন, আমি ১৯৯৪ সালে আন্তর্জাতিক কেরাত প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের হয়ে অংশগ্রহন করে প্রথম স্থান অধিকার করি। আমি চাইলে বড় কোন ইসলামিক প্রতিষ্ঠানে চাকুরি নিয়ে জীবন পার করে দিতে পারতাম। কিন্তু সে দিকে না গিয়ে টুপি বানানোর চিন্তা আমার মাথায় আসে। ৩টি মেশিন নিয়ে শুরু করে এখন আমার এ প্রতিষ্ঠানে ৫শ’ লোকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছি এবং মধ্যপ্রাচ্যের ৭টি দেশে সুনামের সাথে আমার টুপি রপ্তানী করা হচ্ছে।

পরিদর্শন শেষে সিমীত পরিসরে আলোচনা অনুষ্ঠানে সাধারণ শিক্ষা (বিসিএস) ক্যাডার মোঃ নাজিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় ও কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী আহসান খানের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিষেক দাশ, কোম্পানীর পরিচালক (রপ্তানী) মাওঃ মোঃ ইকবাল হোসেন।

এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ তমাল, জেলা পরিষদ সদস্য ভিপি জাকির হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম, সদর ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন মেম্বার, উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ হাসান, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক বিল্লাল হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে অতিথিবৃন্দকে কোম্পানীর পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: