ডেস্ক রিপোর্টঃ শান্ত নিরিবিলি গ্রাম বাগিলারা। কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের এ গ্রামটির মূল সড়ক ধরে প্রবেশ করলেই চোখে পড়বে পানের বরজ। বাঁশ-বেত দিয়ে বেড়া দেয়া ছায়া-সুনিবিড় পানের বরজ দেখলে বাইরে থেকে কিছুই বুঝা যায় না। ভেতরে পানের বরজে চোখ রাখলেই দেখা যায় ক্ষেতে পান গাছের যত্ন নেয়া, পান সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করছেন পান চাষীরা। বাগিলারার উৎপাদিত পান দিয়েই কুমিল্লা জেলার চাহিদা মিটিয়ে রপ্তানী হচ্ছে বিদেশে।

স্থানীয়রা জানান, শতাব্দি আগে বাগিলারা এলাকায় পান চাষ শুরু হয়। এখানকার মাটি পান চাষের জন্য উপযোগী বলেই এক সময়ে স্থানীয়দের মূল জীবিকাই ছিলো পান চাষ। কালক্রমে পান চাষের খরচ বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি সরকারী পৃষ্ঠপোষকতা না থাকায় ঐতিহ্যর এ ফসলটি টিকিয়ে রাখতে পান চাষিদের প্রানন্তকর চেষ্টা একটি লক্ষণীয় বিষয়।

পান চাষি প্রান্তুষ চন্দ্র পাল বলেন,পূর্বপুরুষদের মত তিনিও গত ৩০ বছর পান চাষ করেন।সপ্তাহে শনি ও বুধবার পান সংগ্রহ করেন। প্রান্তুষ চন্দ্র জানান, তিনি ৪২ শতাংশ জমিতে পান চাষ করেছেন। প্রায় এক লাখ টাকা বিনিয়োগ করেছেন। প্রতি মাসে সংসারে ২০-২৫ হাজার টাকা লাগে। পান চাষের মাধ্যমে ঘরের এ চাহিদা মিঠে। এ সব খরচ বাদেও বছর শেষে অন্তত ৫০ হাজার টাকা মুনাফা করতে পারবেন।

স্থানীয় আরেক পান চাষী রনজিৎ পাল জানান, বাগিলারা এলাকায় অন্তত ৪০ জন চাষী পান চাষ করেন। সপ্তাহে শনি ও বুধবার সংগ্রহ করা পান জাফরগঞ্জ বাজারে পাইকারী দরে পান বিক্রি করেন। ৮০ টি পান ১২০ থেকে ১৫০ টাকা । বাগিলারার পানের স্বাদ অন্যন্যা বলে পুরো জেলায় বাগিলারার পানের চাহিদা বেশী।

তবে পান চাষিদের সমস্যা রয়েছে অনেক। বাগিলারার চারটি পানের বরজ ঘুরে দেখা যায়,পান গাছে পোকায় ধরেছে। এ পোকার আক্রমন বন্ধ করতে না পারলে আসছে শীতে পাতা রোগে পান ঝড়ে যাওয়ার আশংকা করছে পান চাষীরা। তাই পান চাষে ক্ষতি এড়ানোসহ সার্বিক সহযোগীতার লক্ষ্যে পান চাষীরা কৃষি অধিদপ্তরের দৃষ্টি আর্কষণ করেন।

এ বিষয়ে কুমিল্লা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক সুরজিত চন্দ্র দত্ত জানান,আসলে আলাদা করে পান চাষীদের জন্য তেমন সরকারী কোন বরাদ্দ নেই। সরকারি সম্পূর্ণ সুযোগ-সুবিধা নির্ধারিত নির্বাচিত কতিপয় কৃষকদের জন্য রয়েছে। তবে আমরা যেটুকু করতে পারি তা হলো পান চাষীদের জন্য প্রয়োজনীয় পরমার্শ প্রদান করতে পারি। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক সুরজিত চন্দ্র দত্ত জানান, বিষয়টা যেহেতু আমি জেনেছি সেহেতু পান চাষীদের জন্য সরকারীভাবে কিছু করা যায় কিনা সে ব্যাপারে অবশ্যই আমি চেষ্টা করবো।