নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কারা নির্যাতিত ভাষা সৈনিক ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের প্রথম নারী শিক্ষক অধ্যাপক লায়লা নূর আর নেই। আজ শুক্রবার কুমিল্লার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

গত ২৮ মে মঙ্গলবার রাতে নগরীর প্রফেসর পাড়ায় নিজ বাসভবনে হৃদরোগে আক্রান্ত হন লায়লা নূর। পরে নগরীর সিডিপ্যাথ হসপিটালের সিসিইউতে ভর্তি করা হয় তাঁকে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।

আজ বাদ আসর নগরীর ধর্মপুর পূর্বপাড়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে গাজীবাড়ি কবরস্থানে দাফন করা হবে লায়লা নূরকে। ভাষা সৈনিক লায়লা নূরের মৃত্যুর সংবাদে কুমিল্লায় তাঁর ছাত্র ও সুধীজনরা হাসপাতালে ছুটে যান।

অধ্যাপক লায়লা নূর ১৯৩৪ সালের ৫ অক্টোবর কুমিল্লায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ছাত্রী থাকাকালীন ভাষা আন্দোলনের পক্ষে মিছিল করায় গ্রেপ্তার হন এবং ২১ দিন কারাভোগ করেন। ১৯৫৭ সালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে প্রথম নারী শিক্ষক হিসেবে ইংরেজি বিভাগে যোগদান করেন তিনি। পরে ১৯৯২ সালে সেখান থেকে অবসর নেন। ২০১৪ সালে ‘অনন্যা শীর্ষ দশ নারী’ পদক পান এই ভাষা সৈনিক।