ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুটি ট্রেনের সংঘর্ষের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫জন নিহত হয়েছেন। সারাদেশের সাথে চট্টগ্রামের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। এ দুর্ঘটনার পর কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনে আটকা পড়েছে জালালাবাদ এক্সপ্রেস ট্রেন।

কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন ম্যানেজার সফিকুর রহমান জানান, দুর্ঘটনার পর লাকসাম থেকে উদ্ধারকারী রিলিফ ট্রেন এরই মধ্যে ঘটনাস্থলে গেছে। দুর্ঘটনার খবর জানতে কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনেও উৎসুক জনতা ভিড় করেছে।

আজ মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) ভোরের দিকে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে রিলিফ ট্রেন। উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা।

জানা যায়, ভোর রাতে এ রেলপথের মন্দভাগ এলাকায় চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী তূর্ণা নিশিতা ও সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রাম গামী উদয়ন এক্সপ্রেসের সাথে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক বলেন, এ পর্যন্ত ১৫ জন নিহতের খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। ৯ জনের লাশ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে, বাকি ৬ জন বিভিন্ন হাসপাতালে মারা যায়। আহত এ পর্যন্ত ৭৪ জনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।