কুমিল্লা নগরীর ২০ নম্বর ওয়ার্ডের কাজীপাড়ায় দুই বছর ধরে নির্মাণ হচ্ছে ২০ হাত দৈর্ঘ্যের একটি ব্রিজ। কবে যে ব্রিজটির কাজ শেষ হবে তা কেউ জানে না। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কাজীপাড়ার এ ব্রিজ দিয়ে যাতায়াত করে দিশাবন্দ, লক্ষীনগর, নোয়াপাড়া, উনাইশার, রাজাপাড়া ও আবাসন প্রকল্পসহ বিভিন্ন গ্রামের লক্ষাধিক মানুষকে। পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড ও জাঙ্গালিয়া যাওয়ারও একমাত্র সড়ক এটি।

এছাড়া কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং সদর দক্ষিণ উপজেলা কমপ্লেক্সে যাতায়াতের জন্যও এ সড়কটি ব্যবহার করা হয়। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজটে বিকল্প সড়ক হিসেবে ব্যবহৃত হয় পুরাতন বিমান বন্দর যাওয়ার এ সড়ক।

কাজীপাড়ায় এয়ারপোর্ট খালের ওপর ব্রিজটি যান চলাচলের উপযোগী থাকলেও তা ভেঙে ফেলা হয়। সেখানে সিটি কর্পোরেশন নতুন ব্রিজ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। ব্রিজের ফাউন্ডেশন নির্মাণের পর দুই বছর ধরে কোনো কাজ হয়নি।

সম্প্রতি কিছু মাটি কাটার কাজ করতে দেখা যায়। ব্রিজ নির্মাণাধীন থাকার কারণে এয়ারপোর্ট খালে বাঁধ দিয়ে রাখা হয়েছে। এতে এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে।

কাজীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন বলেন, দুই বছর ধরে কেন যে ব্রিজটির কাজ হচ্ছে না তা বুঝতে পারছি না। কাজ দ্রুত শেষ না করলে আবার বর্ষা এসে যাবে। এতে এলাকাবাসীর দুর্ভোগ বাড়বে।

দিশাবন্দ এলাকার শিক্ষার্থী আবু সুফিয়ান রাসেল বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ব্রিজটির কাজ বন্ধ রয়েছে। এত দিনে গোমতীর ওপরও একটা বড় ব্রিজ করা যেত।

২০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সিদ্দিকুর রহমান সুরুজ বলেন, ব্রিজটি কেন এতদিন পড়ে আছে তা বুঝতে পারছি না। স্থানীয় মানুষকে বুঝাতে পারছিনা। এ নিয়ে সিটি কর্পোরেশনকে বার বার বলা হয়েছে।

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. মনিরুল হক সাক্কু বলেন, ব্রিজটি নিয়ে মাঝে একটি সংস্থার সঙ্গে সমস্যা হয়েছিল। এখন কাজ কি অবস্থায় আছে তা জেনে জানাতে পারব।

সূত্রঃ ডেইলি বাংলাদেশ