ছবিঃ প্রতীকী

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার হোমনা উপজেলার দুলালপুর ইউনিয়নের মিঠাই ভাঙ্গা গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আজ শুক্রবার (১৪ জুন) সকালে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে একজন টেঁটাবিদ্ধ হয়েছে। গুরুতর আহত মো. তসু মিয়া (৪৫) মিঠাই ভাঙ্গা গ্রামের মৃত গফুর উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: শাহিদা সিকদার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আহত তসু মিয়ার হাতে ৩টি, পায়ে ২টি দেশীয় টেঁটা বিদ্ধ হয়েছিল বলে জানান চিকিৎসক শাহিদা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের সামাদ মেম্বার ও জুনার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ চলে আসছে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে এক সংঘর্ষে সামাদ গ্রুপের নাছির নামের এ যুবক নিহত হয়। এ হত্যার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার প্রধান আসামী জুনা গ্রুপের প্রধান জুনাকে গতকাল দুপুর ১২টার দিকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায় থানা পুলিশ। জুনাকে গ্রেফতারের জের ধরে আজ শুক্রবার সকালে জুনার ভাই রমজানের নের্তৃত্বে সামাদ গ্রুপের সাথে পুনরায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সংঘর্ষে জুনা গ্রুপের তসু মিয়া টেঁটাবিদ্ধ হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হোমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ মো. ফজলে রাব্বীর বলেন, আদিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সহকারী পুলিশ সুপার (হোমনা সার্কেল) মো. ফজলুল করিম জানান, নাছির হত্যা মামলার প্রধান আসামী জুনাকে গ্রেফতার করায় উভয় গ্রুপ আবার সংঘর্ষে জড়ায়। টেঁটাবিদ্ধ তসু মিয়াকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।