ডেস্ক রিপোর্টঃ কুমিল্লার লালমাই উপজেলায় নিখোঁজ হওয়ার ৬ দিন পর পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে আবু সুফিয়ান ওরফে সানি (৫) নামে এক শিশুর। ১২ জানুয়ারি, রবিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ওই শিশুর মরদেহ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে শনিবার রাত ১০ টার দিকে উপজেলার বেলঘর উত্তর ইউনিয়নের দক্ষিণ পালপাড়া গ্রামের লুৎফুর রহমানের পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত আবু সুফিয়ান সানি একই গ্রামের দক্ষিণ পালপাড়ার সৌদি প্রবাসী জুয়েল রানার একমাত্র ছেলে। সে পালপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থী ছিলো।

ওই শিশুর পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, গত ৫ জানুয়ারি দুপুরে শিশু সানি নিখোঁজ হয়। পরে এ ঘটনায় লালমাই থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তার দাদা আবদুল গনি। সর্বশেষ শনিবার রাতে পালপাড়া গ্রামের লুৎফুর রহমানের পুকুরে তার লাশ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে রাতেই লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারের সময় লাশের পা দুটি পুকুরে থাকা জালের সঙ্গে আটকানো ছিলো। এছাড়া শরীরে পচন ধরে ছিলো। ধারনা করা হচ্ছে, হত্যার পর লাশটি পুকুরে ফেলে দেয়া হয় এবং লাশটি ৬ দিন ধরে পুকুরেই ডুবে ছিলো।

নিহতের দাদা আবদুল গনি বলেন, ‘যে বা যারাই তাকে হত্যা করেছে, তাদের ফাঁসি চাই।’

স্থানীয় বেলঘর উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল খায়ের মজুমদার বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, এটা একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে হত্যাকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।’

লালমাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আইয়ুব বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছি। মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে থানা পুলিশের পাশাপাশি পিবিআই ও সিআইডি কাজ করছে।’

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: