কুমিল্লার চান্দিনায় সুদের জিম্মাদার এক করোনা মৃতের কবর খোঁড়ায় বাধা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। অবশেষে এক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতার হস্তক্ষেপে ওই মৃতের কাফন-দাফন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

রোববার ভোরে নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। মৃত ব্যক্তি চান্দিনা উপজেলার মহিচাইল ইউপির জামিরাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি পেশায় কৃষক ছিলেন।

রোববার দুপুরে কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মো. লিটন সরকারের নেতৃত্বাধীন ১০১ সদস্যের স্বেচ্ছাসেবী টিম এসে ওই মৃতের জানাজা শেষে দাফন করেন। এ নিয়ে স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যরা করোনা উপসর্গ ও করোনা নিয়ে মৃত মোট ১৬ জনের দাফন ও সৎকার সম্পন্ন করেন।

কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মো. লিটন সরকার বলেন, রোববার ভোরে ওই ব্যক্তি মারা যান। বেলা ১১টায় আমরা তার বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি সুদের টাকার জিম্মাদার হওয়ায় কবর খুঁড়তে দেয়নি আবদুল কাদির নামে এক ব্যক্তি। পরে আমি তার সঙ্গে কথা বলে কবর খুঁড়ি এবং লাশের গোসল, জানাজা ও দাফন সম্পন্ন করি।

প্রায় এক বছর ধরে ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন ওই ব্যক্তি। সম্প্রতি করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেয়ার পর গত ২৪ জুন চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তারপর থেকে তিনি নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক শিমুল দে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সূত্রঃ ডেইলি বাংলাদেশ

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: