নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নজিরবিহীন নিযার্তন-নিপীড়নের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা অসহায় শরণার্থী রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উদ্যোগে স্থাপিত মনিটরিং সেলে তারা দিন রাত কাজ করছে।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ তার নেতা কর্মীদের নিয়ে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের পাশে দাঁড়াতে ছুটে যান উখিয়ার কুতুপালং এ। সেখানে তারা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্র ও মনিটরিং সেলে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করছেন।

এছাড়া কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাখার নিজস্ব উদ্যোগে ৫০০ রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মাঝে বিশুদ্ধ খাবার পানি, বিস্কুট ও স্যালাইন বিতরন করা হয়। এসময় ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেনসহ অনেক কেন্দ্রীয় নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এ প্রসঙ্গে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ মুঠোফোনে জানান, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উদ্যোগে গঠিত প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্র ও মনিটরিং সেলে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা। এছাড়া আমাদের নিজস্ব উদ্যোগে ৫০০ রোহিঙ্গার মাঝে আমরা ত্রান সহযোগিতা দিয়েছি। মনিটরিং সেলে দায়িত্ব পালন করতে পেরে তিনি ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

মনিটরিং সেলে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা জাহিদুল আলম জুয়েল, মাসুদুর রহমান, আবু বকর সিদ্দিক, সাইফুল ইসলাম, আতিকুর রহমান, সাহাদাত রহমান তারেক, ফয়জুল ইসলাম ফিরোজ, হানিফ ওয়াহিদ, গোলাম দস্তগীর ফরহাদ, সাহাদাত হোসেন সৌরভ, আবু ইউছুপসহ আরও অনেকে দায়িত্ব পালন করছেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: